English

33 C
Dhaka
বৃহস্পতিবার, মে ৩০, ২০২৪
- Advertisement -

ডিবি অফিস থেকে বেরিয়ে ‘ভিডিও’ মুছে ফেলার অনুরাধ জানালেন অপু বিশ্বাস

- Advertisements -

নাসিম রুমি: ডিবি অফিসে হাজির হয়ে আলোচনার মাধ্যমে নিজেদের চলমান দ্বন্দ্ব মিটিয়ে নিলেন ঢালিউড কুইন অপু বিশ্বাস ও গানবাংলা টেলিভিশনের ব্যাবস্থাপনা পরিচালক কৌশিক হোসেন তাপস। সেই সঙ্গে সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিও মুছে ফেলার অনুরোধ জানালেন উভয়েই।

Advertisements

সম্প্রতি একটি ইস্যুকে কেন্দ্র করে সামাজিক মাধ্যমে গানবাংলা টেলিভিশনের চেয়ারপার্সন এর সাথে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসের কথপোকথনের একটি সম্পাদিত ভার্সন প্রকাশের পর গণমাধ্যমে ও অনলাইনে নানা ধরণের বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়িয়ে পড়ে। চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস সামাজিক মাধ্যমে বিভ্রান্তিকর তথ্য দিয়ে ভিডিও প্রকাশ করেন।

Advertisements

যার প্রেক্ষিতে গত ১৭ ডিসেম্বর ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে একটি অভিযোগ দাখিল করেন গানবাংলা টেলিভিশনের ব্যাবস্থাপনা পরিচালক কৌশিক হোসেন তাপস। সে অভিযোগের প্রেক্ষিতে ১৯ ডিসেম্বর ডিবি কার্যালয়ে তলব করা হয় চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাসকে। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ডিবি প্রধান হারুন অর রশীদ ও কৌশিক হোসেন তাপস।

পরবর্তীতে গণমাধ্যমকর্মীদের মুখোমুখি হয়ে অপু বিশ্বাস জানান, তিনি তার ভুল বুঝতে পেরেছেন।

যার প্রেক্ষিতে তিনি তার প্রকাশিত ভিডিও সোস্যাল মিডিয়া থেকে মুছে ফেলবেন।কৌশিক হোসেন তাপস জানান, কে বা কারা সম্পাদিত অডিও ক্লিপটি প্রকাশ করলো তা তিনি উদঘাটন করতে অনুরোধ করেছেন গোয়েন্দা বিভাগকে।

অপু বিশ্বাস বলেন, তাপস ভাই ও ভাবির মধ্যকার সুন্দর সম্পর্ক আছে ও ছিল তা আমি দূর থেকে দেখেছি। আজ কাছ থেকে ভাইয়ার সাথে কথা বলার পর আমি আরও জানলাম।

কেউই ভুলের উর্ধ্বে নয়। আমিও নই। আমি আমার প্রকাশিত ভিডিও সোস্যাল মিডিয়া থেকে মুছে ফেলবো।

কৌশিক হোসেন তাপস বলেন, আমার ও আমার স্ত্রীকে জড়িয়ে গণমাধ্যম ও সোস্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত নানা ধরণের বিভ্রান্তিকর তথ্য ও সংবাদের অবসান চাই। আমরা ভালো আছি।

অপু এ ঘটনায় নিজেকে জড়িয়ে কিছু ভুল করেছে। যা সে স্বীকারও করেছে। আমি তাকে ক্ষমা করে দিয়েছি। বাংলা চলচ্চিত্র ও গণমাধ্যমের প্রতিটি মানুষ আমার পরিবার। আমি সেই পরিবারেরই অংশ।
সবশেষে অপু বিশ্বাস গণমাধ্যমকর্মী ও নিজের ফ্যান ফলোয়ারদের অনুরোধ করেন তার প্রকাশিত ভিডিওটি সকলে যেন মুছে ফেলেন। যা তিনি নিজেও করবেন বলে জানান।
ঘটনার সূত্রপাত চলতি বছর নভেম্বর মাসে। গত ০৪ নভেম্বর ফারজানা মুন্নি ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে জানান, তাপসের সঙ্গে চিত্রনায়িকা বুবলী প্রেম করছেন। যদিও স্ট্যাটাসটি কিছুক্ষণের মধ্যেই আবার সরিয়ে দেন তিনি। এর কিছু দিন পর মুন্নির সঙ্গে অপু বিশ্বাসের একটি কল রেকর্ড ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে তাদের আলোচনার মূলে ছিলেন বুবলী।

সম্প্রতি শাহরিয়ার নাজিম জয়ের সঞ্চালনায় একটি অনুষ্ঠানে এসে নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করেন তাপস-মুন্নি। এরপর সেটার বিপরীতে গত ১৭ ডিসেম্বর ভোর রাতে একটি ভিডিও বার্তা দেন অপু বিশ্বাস। যেখানে তিনি অভিযোগের আঙুল তোলেন মুন্নি ও বুবলীর দিকেই।

১৭ ডিসেম্বর ঘটনাক্রমে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখায় (ডিবি) যান তাপস এবং ডিবি প্রধান হারুনের সঙ্গে আলোচনার ফাঁকে বিষয়টি উঠে আসে। অতঃপর একটি অভিযোগ দাখিল করেন। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতেই অপু ও তাপসকে নিয়ে আলোচনায় বসেন হারুন।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন