English

30 C
Dhaka
শনিবার, এপ্রিল ২০, ২০২৪
- Advertisement -

পাভেল আরিনের সংগীত পরিচালনায় জালাল খাঁর গান

- Advertisements -
ফিউশানের মধ্য দিয়ে গানের মৌলিক সুর ও ঢংয়ের কোন পরিবর্তন নয়, নতুন প্রজন্মের কাছে বাংলা সংগীতের অফুরন্ত ভাণ্ডার হতে অনন্য সব গান নতুন রূপে উপস্থাপনের প্রত্যয় নিয়ে আত্মপ্রকাশ করেছে ‘টাইম জোন লিভিং রুম সেশান’। ইউটিউবে প্রকাশিত হয়েছে এ সংগীত উদ্যোগের প্রথম সিজনের দ্বিতীয় গানটি।

সাধক কবি জালাল উদ্দিন খাঁর ‘আমায় যত দুঃখ দিলি বন্ধুরে’-গানটি প্রকাশিত হয়েছে ২৯ ফেব্রুয়ারি লিপ ডে-তে। পাভেল আরিনের সংগীত পরিচালনায় গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন মাতাল কবি রাজ্জাক দেওয়ানের উত্তরসুরী শিল্পী কাজল দেওয়ান।

গানটি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “সাধক কবি জালাল উদ্দিন খাঁ অনেক ধরণের গান লিখেছেন। সুফিবাদের উপরও তার অনেক গান লেখা আছে। কিছু গান আমরা মঞ্চেও গেয়েছি। কিন্তু এবার যে গানটি গেয়েছি তা সত্যিই অন্যমাত্রার গান। কেন অন্যমাত্রার তা না শুনে বোঝা যাবে না। এমন আয়োজনে গাইতে পেরে খুবই ভালো লেগেছে। মন থেকে গানটা গেয়েছি।”

গানের কথাগুলো এমন-আমায় যত দুঃখ দিলি বন্ধুরে, আমি তোর প্রেমেরই দেওয়ানারে দেওয়ানা, এই মন জানে আর কেউ জানেনা।

পাভেল আরিন বলেন, “গানটির কথায় আমি দারুণভাবে আলোড়িত হয়েছি। জীবন দিয়ে অনুভব করেছি- তাই এটি বেছে নেয়া। শিল্পী কাজল দেওয়ান যখন গান করেন তখন তিনি এত প্রাণবন্ত এত সততার সাথে সুর উচ্চারণ করেন যে কারণে তার সাথে এ গানটি নিয়ে কাজ করতে আগ্রহী হয়েছি। তার অন্যতম শক্তির জায়গা গানে টান দিয়ে তিনি একটানা দীর্ঘক্ষণ ধরে রাখতে পারেন। এমন ক্ষমতা বাংলা গানে দুস্প্রাপ্য। এ গানেও তার একটি নমুনা শ্রোতারা পাবেন।”

পাভেল জানান, গানের ‘অরিজিনালিটি’ রক্ষা করে এ ধরণের কালজয়ী গানগুলোর শ্রতিমধুর নতুন রেকর্ডেড ভার্সন তৈরির লক্ষ্যেই কাজ করছে টাইম জোন লিভিং রুম সেশান। ভালোবাসা দিবসে রবীন্দ্রনাথের ‘ভালোবেসে সখী’-গানটির দারুণ শ্রোতাপ্রিয়তা অর্জনের পর এবার এলো জালাল খাঁর গানটি।

গানটিতে বাঁশি বাজিয়েছেন সোহাগ, ভায়োলিন- পলাশ দেওয়ান, ইয়ার হোসাইন। গিটারে ছিলেন হাসিবুল নিবিড়, মিছিল, এ এমএম নওয়াজ শরীফ, মেন্ডোলিন বাজিয়েছেন রায়হান পারভেজ আখন্দ। পিয়ানোতে ছিলেন আরিফুল হাসান শান্ত। পারকেশান-  মো:সোহেল মিয়া, এসকে সাগর খান, দোতারা-আনন্দ শিকদার।

সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, এই আয়োজনের সহযোগি ও পৃষ্ঠপোষক হিসেবে আছে কল্লোল গ্রুপ অব কোম্পানিজের আওতাধীন ইন্টারন্যাশনাল ব্র্যান্ড ঘড়ির অথরাইজড রিটেইল চেইনশপ ব্র্যান্ড “টাইম জোন”। এবং ডিজিটাল স্ট্র্যাটেজি ও সার্বিক তত্ত্বাবধানে আছেন কল্লোল গ্রুপ অব কোম্পানিজের হেড অব ডিজিটাল মার্কেটিং রিফাত আহমেদ।

এই উদ্যোগের সম্পর্কে তিনি জানান; ‘লিভিং রুম সেশন’ মূলত ট্যালেন্টেড সংগীত পরিচালক পাভেল আরিনের ব্রেইন চাইল্ড। বাংলা গান ও সংস্কৃতির প্রতি দায়বদ্ধতা থেকে বাংলদেশের মিউজিককে বিশ্ব দরবারে পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যেই আমরা ‘টাইম জোন’ এই উদ্যোগের সাথে সম্পৃক্ত হয়েছি। এই উদ্যোগের সাথে থাকতে পেরে আমরা উচ্ছ্বসিত।
‘টাইম জোন লিভিং রুম সেশন’ এর পরবর্তি পরিকল্পনা সম্পর্কে রিফাত আহমেদ বলেন, এই সিজনের গানগুলোর প্রোডাকশন সম্পন্ন হওয়ার পরে এসে আমরা সম্পৃক্ত হয়েছি, এটি আমাদের মাত্র শুরু, আশা করছি পরবর্তি সিজনগুলোতে একদম গ্রাউন্ড লেভেল থেকে আমরা একসাথে কাজ করবো এবং আরও বড় পরিসরে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্নতা গুরুত্ব দিয়ে ‘টাইম জোন লিভিং রুম সেশন’ কে নিয়ে আসা হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

‘‘টাইম জোন লিভিং রুম সেশন’’-সংগীত প্রযোজনা করেছে বাটার কমিউনিকেশন। গানগুলোর ভিডিও নির্মাণ করেছেন মারুফ রায়হান। পরিবেশনায়-মাশরুম এন্টারটেইনমেন্ট। ওয়াড্রোব পার্টনার- সেইলর ও পি আর পার্টনার হিসেবে সহযোগিতা করছে ইষ্টিশন কমিউনিকেশনস।

নিয়মিত বিরতিতেই নতুন নতুন চমক নিয়ে প্রথম সিজনের গানগুলো প্রকাশিত হতে থাকবে। ‘‘টাইম জোন লিভিং রুম সেশন’’ ফেসবুক পেজ, ইউটিউব চ্যানেল এবং স্পটিফাই সহ বিভিন্ন স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম -এর মাধ্যমে সঙ্গীতপ্রেমীরা এই গানগুলো উপভোগ করতে পারবেন।
সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন