English

21 C
Dhaka
শনিবার, ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২৩
- Advertisement -

বাবার শেষকৃত্যে কান্নায় ভেঙে পড়লেন চঞ্চল চৌধুরী

- Advertisements -
Advertisements

অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরীর বাবা রাধা গোবিন্দ চৌধুরী (৯০) মারা গেছেন। মৃত্যুর খবরটি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন অভিনেত্রী শাহনাজ খুশি।

মঙ্গলবার (২৭ ডিসেম্বর) রাত ৭টা ৫০ মিনিটে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

Advertisements

চঞ্চলের নিজ এলাকা পাবনার সুজানগর উপজেলার কামারহাটে আজ বুধবার তার বাবার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

বাবার শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে কান্নায় ভেঙে পড়েন চঞ্চল। শাহনাজ খুশি বুধবার সোশ্যাল হ্যান্ডেলে বেশ কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে বিমর্ষ চঞ্চল চৌধুরীকে সান্ত্বনা দিচ্ছেন স্বজনরা।

শাহনাজ খুশি লিখেছেন, ‘শেষ হলো চঞ্চল বন্ধু, তোর বাবার শেষ যাত্রা! কী বিচিত্র এ পৃথিবীর নিয়ম। গতকাল পর্যন্ত যে মানুষটাকে সর্বোচ্চ পে করে কত যত্ন করে রাখা, প্রাণটা না থাকলে তাকেই কোথায় রেখে আসে! আমি প্রায়শ’ই বলতাম, যার যায়, সে ছাড়া এ নিষ্ঠুর শূন্যতা কেউ বোঝে না! এ কথাটা তেমন গুরুত্ব হয়ত তখন ছিল না, অবশ্য এ ব্যথার ওজন কথা দিয়ে করাও সম্ভব নয়। ’

বাবার চলে যাওয়ায় চঞ্চলের অবস্থা দেখে খুশি লিখেছেন, ‘আজ তোর আকুল করা আহাজারি দেখে বুকটা বিদীর্ণ হচ্ছিল, আর বার বার মনে হচ্ছিল তুইও জেনে গেলি, যার যায় সেই জানে এ গভীর শূন্যতা!
তোর পাশে কত কত দরদি মানুষ বন্ধু! পাঁচ বোন দুই ভাইয়ের অতি আদরের ঢাকা তুই, যেন কোন বাতাসেরও ছোঁয়াচ না লাগে!’

খুশি আবেগ প্রকাশ করে লিখেছেন, ‘কেউ জানবে না কোনদিন আমার সে ক্ষত! সারা দেশের মানুষ তোর ব্যথায় সমব্যথী। তোর সব ব্যথা মায়ায় ভরে উঠুক, তুই আবার আমাদের মাঝে তোর দারুণ সব কাজ নিয়ে ফিরে আয়, চিৎকার করে ফোনে বল, বন্ধু তুই খিচুড়ি রান্না কর, আসতেছি আড্ডা দিব, সেই অপেক্ষায় থাকলাম। ’

জানা যায়, দুই সপ্তাহ ধরে চঞ্চল চৌধুরীর বাবা রাধা গোবিন্দ চৌধুরী হাসপাতালের ভর্তি ছিলেন। তার চিকিৎসা চলছিল আইসিইউতে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় স্ট্রোক করে মারা যান তিনি।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন