English

34.7 C
Dhaka
বুধবার, মে ২৫, ২০২২
- Advertisement -

বেশী কথা বলতে চাইনা, ভয় লাগে, সব কথা বলাও ঠিকনা: আসিফ আকবর

- Advertisements -

দেশের জনপ্রিয় গায়ক আসিফ আকবর। গান দিয়ে মাতিয়ে রেখেছেন শ্রোতাদের। অভিনয় করেও বাজিমাত করেছেন তিনি। একজন লেখক হিসেবেও তার পরিচিতি বেশ। কলাম লেখার পাশাপাশি প্রকাশ করেছেন বইও।

Advertisements

প্রায়ই এ তারকা সোশ্যাল মিডিয়ায় কলম ধরেন নানা ইস্যু নিয়ে। সেসব লেখা আলোচিত হয়। আজ বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) আসিফ এক দীর্ঘ স্ট্যাটাস দিয়েছেন। সেখানে উঠে এসেছে শোবিজের মানুষদের প্রতি ভক্ত-অনুরাগীদের নেতিবাচক ভাবনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ।

আসিফ লিখেছেন, ‘পৃথিবী থেকে বিদায় নিতে হবে সবাইকে। আমরা যারা শোবিজে কাজ করি, কারও কারও হিসাবে তারা সবাই দোজখে আগুন ধরানোর এক নম্বর লাকরি। আমাদের সব পাপের শাস্তি দুনিয়াতে আর আখেরাতে একই মাত্রার কিনা জানি না। সিনেমা, নাটক ও গানসহ সব শৈল্পিক চর্চাকে আজকাল ঘৃণার চোখে দেখা হয়।

অত্যাচারী লুটেরা ক্ষমতার অপব্যবহারকারী সুদ ও ঘুষ খোর হারামজাদারা হয় রাষ্ট্রের এলিট সিটিজেন। মাঝে মাঝে প্রশ্ন জাগে, আপনাদের ঘৃণাভরা মনে আমাদের অস্তিত্ব কীভাবে কাজ করে!!! আমি গান গেয়েছি পাপ করেছি, আমার শাস্তি দুনিয়ায় অভিশপ্ত হয়ে বেঁচে থাকা।’

Advertisements

তিনি আরও লেখেন, ‘আপনাদের কেউ কেউ গান শুনবেন, আর ব্র্যাকেটে জাহান্নামের ভয় দেখাবেন! এ কেমন বৈপরিত্য!! রঙিন দুনিয়া আপনার দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। আপনিও মজা পাচ্ছেন, ফাঁকে ফাঁকে রঙিন দুনিয়ার সঙ্গত পেতে টাকা ঢালছেন নিজের যে কোনো পন্থায় উপার্জনের গরমে। সুযোগের অভাবে ভদ্রলোক হয়ে থাকা সব পাপীর রেকর্ড আল্লাহর কাছে অবশ্যই আছে।

শো’বিজ এতো ঘৃণার জায়গা হলে ব্যান করে দেয়া হউক দেশের চলিত সিলেবাস থেকে।
আমি পুরুষ হিসেবে নিজেই সুযোগ সন্ধানী অপরাধী। আমাকে ধরতে হলে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে প্রমাণের অভাব নেই। যারা ধরবেন তাদের চলাচল তো আমাদের সাথেই!!!

এই নগরে রাতের অন্ধকার জগতে পোশাকে পোশাকে কোন পার্থক্য হয় না। ক্ষমতা যার কাছে তিনি সাধু, বাকী ধৃতরা সব অপরাধী, অথচ সবাই সবাইকে চেনে। হঠাৎ করে ধরা পড়া অপরাধীরা নিজে নিজে তৈরি হয়নি। তাদের পেছনে কেউ ছিল যারা রাষ্ট্রের প্রভাবশালী। আজকাল বেশী কথা বলতে চাইনা, এখন ভয় লাগে। সব কথা বলাও ঠিকনা।

শো’বিজের নাম ভাঙ্গিয়ে খুব মজা হচ্ছে সুপার সিভিলাইজড সোসাইটিতে। রঙিন দুনিয়া সবসময় রঙিন থেকে রঙিনতম হতেই থাকবে। ফেঁসে যাবে উচ্চাভিলাষী কেউ কেউ। তাদের পেছনের পৃষ্ঠপোষকতাকারী গডফাদার নামের শুয়োরগুলো এলিট থেকে যাবে। পাবলিক হাসবে, মজা নিবে শো’বিজের জোকারদের নিয়ে। তারা ভুলে যায় নিজের পরিবারেও এমন অভিশপ্ত কারো জন্ম হতে পারে।

খারাপ আমিও, সবসময়ের জন্যই খারাপ। আমার রুটি রিজিক এর মালিক মহান আল্লাহ, নইলে এই পাপাচারক্লিষ্ট গান গাওয়া আমার পেশা কেন হবে!!! খুব বেশী খারাপ লাগলে বাংলাদেশের শো’বিজ বয়কট করে আন্তর্জাতিক মাত্রার বিনোদন নিন।

শো’বিজে অনেক খারাপ মানুষের ভীড়ে একজন সৈয়দ আবদুল হাদী এবং ফেরদৌসী রহমান আন্টির মত লিভিং লিজেন্ডরাও এখনো সভ্যতার উপমা হয়ে জীবিত আছেন এই বঙ্গদেশে। নিজেও সভ্য হউন, আর আমরা অসভ্যরা আপনার মত সভ্যদের মঙ্গল কামনা করি সবসময়। ভালবাসা অবিরাম…’।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন