English

28 C
Dhaka
রবিবার, এপ্রিল ১৪, ২০২৪
- Advertisement -

ভারতের নাগরিকত্ব পেতে ১৮ বছর লেগেছে আদনান সামির!

- Advertisements -

ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী আদনান সামি।  ব্যতিক্রমী কণ্ঠ আর সুরের জাদুতে দেড় দশক ধরে মুগ্ধ করে এসেছেন ভক্তদের। একক অ্যালবাম থেকে বলিউডের সিনেমায় গান, সব জায়গায় নিজের দারুণ ছাপ রেখেছেন এই গায়ক।

তবে জন্মসূত্রে আদনান সামি ভারতীয় ছিলেন না।পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত এই গায়কের জন্ম লন্ডনে। ২০১৬ সালে পৈতৃক ভিটা পাকিস্তান ছেড়ে ভারতে চলে আসেন আদনান সামি। বর্তমানে তিনি ভারতের নাগরিক। তবে এই নাগরিকত্ব পাবার জন্য দীর্ঘ ১৮ বছর অপেক্ষা করতে হয়েছে গায়ককে। সম্প্রতি নিজের অতীতের বিষয়ে জানিয়েছেন আদনান। একসময় রাষ্ট্রহীন থাকার মর্মান্তিক বেদনার কথাও শেয়ার করেছেন গায়ক।

ম্যাশেবল ইন্ডিয়ার ‘দ্য বম্বে জার্নি’ সিরিজের একটি পর্বে উপস্থিত হয়ে আদনান সামি বলেছেন, “এই যাত্রাটি ছিল কঠিন সব বাঁক এবং বিপত্তিতে পরিপূর্ণ। এক বছরেরও বেশি সময় ধরে ‘রাষ্ট্রহীন’ ছিলাম। লোকেরা মনে করে যে আমার এই যাত্রা সহজ ছিল কারণ আমি একজন তারকা। কিন্তু এটা সহজ ছিল না। সহজ সমাধান বলে কিছু নেই। আপনাকে সবকিছুর জন্য কাজ করতে হবে। ”

ভারতের নাগরিকত্ব পাওয়ার বিষয়ে সামি বলেন, “আমার ১৮ বছর লেগেছে। এই ১৮ বছরের জার্নি খুব কঠিন ছিল। আমি এই সম্পর্কে কাউকে কিছু বলিনি। একদিকে নিজের আসল নাগরিকত্ব ত্যাগ করতে হয়েছিল, অপরদিকে ভারতেও আমাকে দুইবার প্রত্যাখ্যান করা হয়েছিল। মাঝে দেড় বছর আমি সম্পূর্ণ রাষ্ট্রহীন ছিলাম। আমি কোনো দেশেরই ছিলাম না। পাসপোর্ট একটি নথি মাত্র, কিন্তু আমি কোনো দেশের নাগরিক ছিলাম না। আমি ভ্রমন করতে পারিনি, কিছুই ঠিকঠাক করতে পারিনি। ”

বলিউডের বেশ কিছু চলচ্চিত্রে কণ্ঠ দিয়েছেন আদনান সামি। একক অ্যালবামের ক্ষেত্রেও সর্বাধিক বিক্রির রেকর্ড আছে এই গায়কের।  ভারতের সর্বাধিক পরিচিত গায়কদের মধ্যে তিনি অন্যতম।  ২০২০ সালে ভারতের অন্য়তম সেরা জাতীয় পুরস্কার ‘পদ্মশ্রী’ পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন তিনি।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন