English

25 C
Dhaka
শনিবার, জানুয়ারি ২৮, ২০২৩
- Advertisement -

‘যদি মরতে হয় এমনি মরব, তবু কেমোথেরাপি নেব না’

- Advertisements -

বলিউড অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত। ২০২০ সালে জানতে পারেন তিনি ফুসফুস ক্যানসারে আক্রান্ত। ফুসফুস ক্যানসারের তৃতীয় ধাপে ছিলেন সঞ্জয়। শুরুতে মুম্বাইয়ের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নেন তিনি। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে যান। মরণব্যাধি ক্যানসারের সঙ্গে যুদ্ধ করে জয়ী হয়েছেন এই অভিনেতা।

Advertisements

ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার খবর জানার পর কী প্রতিক্রিয়া ছিল সঞ্জয় দত্তের? এসব বিষয় নিয়ে কয়েক দিন আগে একটি হাসপাতালে আয়োজিত অনুষ্ঠানে কথা বলেন এই অভিনেতা।

শুরুর দিকের ঘটনা বর্ণনা করে সঞ্জয় দত্ত বলেন— ‘শুরুতে পিঠে ব্যথা হচ্ছিল। গরম পানির বোতল আর ব্যথানাশক ওষুধ খেয়েই যাচ্ছিলাম। একদিন দেখি নিঃশ্বাস নিতে পারছি না। পরে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রথমদিকে ক্যানসারের খবর আমাকে সঠিকভাবে জানানো হয়নি।’

Advertisements

ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার খবর যেদিন সঞ্জয় দত্তকে জানানো হয়; সেদিন তার সঙ্গে পরিবারের কেউ ছিলেন না। তা উল্লেখ করে এই অভিনেতা বলেন— ‘সেদিন আমি একাই ছিলাম। আকস্মিকভাবে আমাকে জানানো হয়, আপনার ক্যানসার হয়েছে। আমার স্ত্রী, আমার পরিবার বা আমার বোন, কেউই তখন আমার আশেপাশে ছিল না। ক্যানসার শনাক্ত হওয়ার পর আমার বোন প্রিয়া প্রথমে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। সেই সময়ে মান্যতা দুবাইতে ছিল।’

ক্যানসার আক্রান্ত হওয়ার খবর জানার পর আপনার মাথায় কী চিন্তা এসেছিল? এমন প্রশ্নের জবাবে সঞ্জয় দত্ত বলেন, ‘এরকম পরিস্থিতিতে পুরো জীবনটা  ফ্ল্যাশব্যাকে চোখের সামনে ভেসে ওঠে। আর আমার পরিবারেই তো ক্যানসারের দীর্ঘ ইতিহাস আছে। আমার মা অগ্ন্যাশয়ের ক্যানসারে মারা গিয়েছেন। আমার স্ত্রী (রিচা শর্মা) ব্রেন ক্যানসারে মারা গিয়েছে। আমি প্রথম যে কথাটা বলেছিলাম তা হলো— যদি মরতে হয় তাহলে এমনি মরব, তবু কেমোথেরাপি নেব না।’

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন