English

26 C
Dhaka
শুক্রবার, মার্চ ১, ২০২৪
- Advertisement -

রিয়্যালিটি শো মিরাক্কেল থেকে বাদ পড়লেন শ্রীলেখা!

- Advertisements -
Advertisements
Advertisements

বহু বছর ধরে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছে ভারতের বাংলা টেলিভিশনের অন্যতম রিয়্যালিটি শো মীরাক্কেল। এই শোয়ের বিচারক হিসেবে প্রথম থেকেই রয়েছেন শ্রীলেখা মিত্র। পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রজতাভ দত্তের সঙ্গে বরাবরই বিচারকের আসনে দেখা গেছে শ্রীলেখাকে। তবে এবার মীরাক্কেলের আসরে বিচারক হিসেবে রাখা হচ্ছে না তাকে।
সোমবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শ্রীলেখা জানান, ফিরেছে মীরাক্কেল। কিন্তু বিচারকের আসন থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে তাকে। যদিও তাকে জি বাংলার তরফ থেকে সরাসরি কিছু জানানো হয়নি। কোনো ফোনও করা হয়নি। কিন্তু তিনি শুনেছেন টিজারের শুটিং শুরু হয়ে গেছে। এমনকি উপস্থাপক মীরও তাকে কিছু বলেননি। যে কারণে আরও খারাপ লেগেছে তার।
ফেসবুক পোস্টে শ্রীলেখা লেখেন, ‘আমাকে বাদ দিয়েই বাংলার সবচেয়ে জনপ্রিয় কমেডি শো আবার শুরু হচ্ছে। সত্যি কথা বলার জন্য এবং ব্র্যান্ডের প্রতি এত বছরের আনুগত্যের জন্য আমায় এই দামটি দিতে হলো। সেই সঙ্গে অবশ্যই এই সিস্টেমের কোনো অংশে তেল না দেওয়ার জন্য। ধন্যবাদ এই জনপ্রিয় চ্যানেলটিকে। আপনিই সেই সঠিক নারী, আমি আমার খামতিগুলো স্বীকার করি। যারা আমায় অপছন্দ করেন, ঘৃণা করেন তারা এবার পার্টি করতে পারেন।’
সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পরই টলিউডের নেপোটিজম নিয়ে মুখ খুলেছিলেন শ্রীলেখা। সেখানে তিনি বলেছিলেন কীভাবে তাকে জোর করে নানা কাজ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। সরাসরি প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় এবং ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের দিকে আঙুল তুলেছিলেন। কীভাবে প্রেম করে ঋতুপর্ণা-প্রসেনজিৎ জুটি জনপ্রিয় হয়, সেই ব্যাখ্যাও তিনি দিয়েছিলেন।
এরপর তাকে কটাক্ষ করেই স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় বলেছিলেন, ‘নিজের খামতি ঢাকতে অন্যদের কাজকে ছোট করার কিংবা স্লাটশেমিং করে তাদের অপমান করার কোনো অর্থ নেই।’
প্রায় ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে মীরাক্কেলে বিচারকের আসনে দেখা গেছে শ্রীলেখাকে। এবার হয়তো সেই আসনে দেখা যেতে পারে স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়, পাওলি দাম কিংবা নুসরত জাহানকে। যদিও চ্যানেলের তরফ থেকে বা এই অভিনেত্রীদের কাছ থেকে কিছুই জানানো হয়নি।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন