English

29 C
Dhaka
শনিবার, জুন ১৫, ২০২৪
- Advertisement -

হীরামান্ডি: নিন্দার মুখে শারমিন, পাশে দাঁড়ালেন রিচা

- Advertisements -

সিনেমায় বর্ণিল অধ্যায় পেরিয়ে ওটিটি জগতে এলেন খ্যাতিমান নির্মাতা সঞ্জয়লীলা বানসালি। মুক্তি পেয়েছে তার প্রথম ওয়েব সিরিজ ‘হীরামান্ডি: দ্য ডায়মন্ড বাজার’। বিশাল আয়োজনে নির্মিত এই সিরিজ দর্শকের মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাচ্ছে। তবে নেটফ্লিক্সে এটি বিপুল সাড়া পাচ্ছে।

Advertisements

‘হীরামান্ডি’র যে দিকটি নিয়ে সবচেয়ে বেশি সমালোচনা-নিন্দা হচ্ছে, তা হলো আলমজেব চরিত্র। যেটা ফুটিয়ে তুলেছেন শারমিন সেগাল। কিন্তু তা মনে ধরেনি দর্শকের। শারমিনের অভিনয় নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তুমুল সমালোচনা হচ্ছে। এমনকি তাকে কাস্ট করার কারণে বানসালির বিরুদ্ধে ‘স্বজনপোষণ’র অভিযোগও তুলছে নেটিজেনরা। কারণ তিনি শারমিনের মামা।

এদিকে নিন্দায় বিপর্যস্ত শারমিনের পাশে দাঁড়ালেন অভিনেত্রী রিচা চাড্ডা। তিনিও ‘হীরামান্ডি’তে অভিনয় করেছেন এবং ভূয়সী প্রশংসা পাচ্ছেন। এক সাক্ষাৎকারে রিচা বলেন, ‘সত্যি বলতে, এটা (সমালোচনা করা) দর্শকের অধিকার। তারা সিরিজটি পছন্দ করতে পারে, অপছন্দও করতে পারে। কারও অভিনয় ভালো লাগবে, আবার কারও কাজ ভালো লাগবে না। কিন্তু এই সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে কী হয়, মানুষ ট্রল করে, মিম বানায়, নানাভাবে নিন্দা করে; আমার মতে এটা সবার জন্যই একটু ক্ষতিকর। কারও প্রতি নির্দয় হওয়া উচিত নয়, কারণ আগামীকাল এমন কিছু আপনার সঙ্গেও ঘটতে পারে। এবং হ্যাঁ, প্রত্যেকেই মানুষ।’

Advertisements

সিরিজে তাজদারের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন তানা শাহ বাদুসা। তার সঙ্গে আলমজেব তথা শারমিনের প্রেম দেখানো হয়েছে। তিনিও শারমিনের পক্ষে মন্তব্য করেছিলেন। তিনি জানান, এমন নির্বিকার থাকাই তার অভিনয়ের ধরন।

উল্লেখ্য, ‘হীরামান্ডি’ নির্মিত হয়েছে ১৯৪০-এর দশকের প্রেক্ষাপটে। তখন লাহোরে হীরামান্ডি নামের এলাকায় যৌনপল্লী ছিল। সেখানকার ছয় যৌনকর্মীকে ঘিরেই এগিয়েছে সিরিজের গল্প। এর মধ্য দিয়ে উঠে এসেছে ভারতের ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের প্রসঙ্গ। সিরিজটিতে আরও আছেন মনীষা কৈরালা, সোনাক্ষী সিনহা, অদিতি রাও হায়দারি, সানজিদা শেখ, ফারদিন খান, শেখর সুমন প্রমুখ।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন