English

27 C
Dhaka
শুক্রবার, জানুয়ারি ২৭, ২০২৩
- Advertisement -

ভাঙা পা নিয়ে একাই হাসপাতালে এলো বিড়াল, ভিডিও ভাইরাল

- Advertisements -
Advertisements
Advertisements

একটি বিড়াল খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে হাসপাতাল চত্বরে ঘুরে বেড়াচ্ছে, এদিক-ওদিক তাকাচ্ছে। কিছু যেন খুঁজছে বা সাহায্য চাইছে। সিসিটিভিতে বিষয়টি দেখে কৌতূহল তৈরি হয় এক নার্সের। তিনি বিড়ালটির কাছে যান।

তারপর কোলে তুলে নিয়ে বুঝতে পারেন, বিড়ালটির পায়ে কোনো সমস্যা রয়েছে। পরীক্ষা করে দেখেন, বিড়ালটির পা ভেঙে গেছে। পরে চিকিৎসা দেওয়া হলে চলে যায় বিড়ালটি। কয়েক দিন পর আবারও হাসপাতালে আসে সে, যেন তার পা পরীক্ষা করাতে হবে। 

পরে ওই নার্স ওষুধ দেওয়ার পাশাপাশি বিড়ালটির হাঁটতে যেন কোনো অসুবিধা না হয় সে ব্যবস্থাও করেন। বিড়ালটিকে চেয়ারে বসিয়ে তার পায়ে বেঁধে দেন একটি ‘মেডিকেটেড’ লোহার রড। এই ভিডিওই পরে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা হলে তা ভাইরাল হয়ে যায়।

অনেক মানুষ ভিডিও দেখে ওই নার্সের প্রশংসা করেছেন। বাহবা জানিয়েছেন বিড়ালটির বুদ্ধিরও।

ভিডিওতে দেখা গেছে, আহত একটি সাদা-কালো বিড়াল ওই হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ঘুরে বেড়াচ্ছে। খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে হাঁটছে সে। হঠাৎ এক নার্স বিড়ালটির কাছে এগিয়ে আসেন। ভিডিওর পরের অংশে বিড়ালটিকে একটি চেয়ারে বসে থাকতে দেখা যায়। ওই নার্স তখন তার চিকিৎসা করছেন।

তুরস্কের একটি হাসপাতালে গত সপ্তাহে এ ঘটনা ঘটেছে। দেশটির ততভন শহরের বিটলিস জেলার ওই হাসপাতালের এক কর্মী এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন।

ওই নার্সের নাম আবুজার ওজদেমির বলে জানা গেছে। তিনি বলেন, ‘আমি কাজ করছিলাম। সেই সময় সিসিটিভিতে দেখি, একটি বিড়াল খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে হাসপাতালে ঘুরে বেড়াচ্ছে। আমি তার প্রয়োজনীয় চিকিৎসা করি। এরপর বিড়ালটি নিজেই চলে যায়। কয়েক দিন পর বিড়ালটি নিজেই এসেছিল। মনে হয় পরীক্ষা করাতেই! আর একবার তার পা পরীক্ষা করানোর জন্য। ’

বিড়ালটি কোথা থেকে এসেছিল, কোথায় গিয়েছিল, তা যদিও জানা যায়নি। হাসপাতালের কর্মীরা বিড়ালটির নাম রেখেছেন ডাভসো। জানা গেছে, এর আগে ওই হাসপাতালে একটি বিড়াল ছিল। পরে সে মারা যায়। তার নামও ডাভসো ছিল।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন