English

28 C
Dhaka
বুধবার, নভেম্বর ৩০, ২০২২
- Advertisement -

বিশ্বে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ২ কোটি ২৫ লাখ ৭৯ হাজার ৯৫ জন,ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ কোটি ৫৩ লাখ ১ হাজার ২৫৫ জন

- Advertisements -
Advertisements
Advertisements

প্রতিবেশী দেশ ভারত বিশ্বে করোনা আক্রান্তে শীর্ষে। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল,কলোম্বিয়া, পেরু,মেক্সিকো,আর্জেন্টিনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে।
আজ বৃহস্পতিবার (২০ আগষ্ট) বাংলাদেশ সময় সকাল ১০টা পর্যন্ত বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২ কোটি ২৫ লাখ ৭৯ হাজার ৯৫ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ লাখ ৭১ হাজার ৮৩০ জন। নতুন করে প্রাণ গেছে ৬ হাজার ৬৪৯ জনের। এ নিয়ে করোনারায় মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ৭ লাখ ৯১ হাজার ২ জন মানুষ।
আর ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ কোটি ৫৩ লাখ ১ হাজার ২৫৫ জন।গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ৫৩ হাজার ৪৭২ জন।বিশ্বে বর্তমানে মধ্যম মানের আক্রান্ত ৬৪ লাখ ২৫ হাজার ৯৬ জন বা ৯৯% এবং গুরুতর অসুস্থ্য ৬১ হাজার ৭৪২ জন বা ১%।
যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা সর্বোচ্চ ৫৭ লাখ ৯৩১ জন।গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৪৪ হাজার ৯৫৭ জন। সবচেয়ে বেশি মৃত্যুও হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে ১ লাখ ৭৬ হাজার ৩৩৭ জন।গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ২৬৩ জনের। আক্রান্তের মতো সুস্থ হওয়ার দিক থেকেও সবার শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এ পর্যন্ত অন্তত ৩০ লাখ ৬২ হাজার ৩৩১ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন।
আক্রান্তের ও মৃতের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের পরেই উঠে এসেছে ব্রাজিল। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৪ লাখ ৬০ হাজার ৪১৩ জন।গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৪৮ হাজার ৫৪১ জন। আর আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ লাখ ১১ হাজার ১৮৯ জন।গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে মৃত্যু ১ হাজার ১৭০ জনের। এখন পর্যন্ত ব্রাজিলে ২৬ লাখ ১৫ হাজার ২৫৪ জন সুস্থ হয়েছেন।
গত ২৪ ঘন্টায় প্রতিবেশী দেশ ভারতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৬৯ হাজার ১৯৬ জন।মৃত্যু হয়েছে ৯৮০ জনের। আক্রান্তের সংখ্যায় ভারত উঠে এসেছে ৩ নম্বরে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৮ লাখ ৩৫ হাজার ৮৮২ জন, আর এখন পর্যন্ত মৃত্যু ৫৩ হাজার ৯৯৪ জনের।ভারতে সুস্থ হয়েছেন ২০ লাখ ৯৬ হাজার ৬৮ জন।
আক্রান্তে চতুর্থ অবস্থানে রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৯ লাখ ৩৭ হাজার ৩২১ জন।গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ৪ হাজার ৮২৮ জন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১৫ হাজার ৯৮৯ জন।অপরদিকে সুস্থ হয়েছেন ৭ লাখ ৪৯ হাজার ৪২৩ জন।
সাউথ আফ্রিকায় মোট আক্রান্ত ৫ লাখ ৯৬ হাজার ৬০ জন। ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ৩ হাজার ৯১৬ জন।মোট মারা গেছেন ১২ হাজার ৪২৩ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৪ লাখ ৯১ হাজার ৪৪১ জন।
পেরুতে মোট আক্রান্ত ৫ লাখ ৫৮ হাজার ৪২০ জন।গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ৯ হাজার ৯৯ জন। মোট মৃত্যু ২৬ হাজার ৮৩৪ জন।আর সুস্থ্য হয়েছেন ৩ লাখ ৭৭ হাজার ৪৫৩ জন।
মেক্সিকোতে মোট আক্রান্ত ৫ লাখ ৩১ হাজার ২৩৯ জন।গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ৫ হাজার ৫০৬ জন। মোট মৃত্যু ৫৭ হাজার ৭৭৪ জনের।গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে মৃত্যু ৭৫১ জনের। এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৩ লাখ ৬৩ হাজার ৩০৭ জন।
কলোম্বিয়া মোট আক্রান্ত ৫ লাখ ২ হাজার ১৭৮ জন। মারা গেছেন ১৫ হাজার ৯৭৯ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৩ লাখ ২৬ হাজার ২৯৮ জন।গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ১৩ হাজার ৫৬ জন।মৃত্যু ৩৬০ জনের।
চিলিতে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ৯০ হাজার ৩৭ জন। মোট মৃত্যু ১০ হাজার ৫৭৮ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৩ লাখ ৬৪ হাজার ২৮৫ জন।
স্পেনে আক্রান্ত ৩ লাখ ৮৭ হাজার ৯৮৫ জন।মৃত্যু ২৮ হাজার ৭৯৭ জন আর সেরে উঠেছে ১ লাখ ৯৬ হাজার ৯৫৮ জন।
ইরানে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ৫০ হাজার ২৭৯ জন।মোট মৃত্যু ২০ হাজার ১২৫ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৩ লাখ ২ হাজার ৫২৮ জন।গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ২ হাজার ৪৪৪ জন এবং মৃত্যু ১৫৩ জনের।
এর পরের অবস্থানে যুক্তরাজ্য, এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ২১ হাজার ৯৮ জন। মারা গেছেন ৪১ হাজার ৩৯৭ জন।
আর্জেন্টিনায় মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ১২ হাজার ৬৫৯ জন। মারা গেছেন ৬ হাজার ৩৩০ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ২৮ হাজার ৭২৫ জন।গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ৬ হাজার ৬৯৩ জন এবং মৃত্যু ২৮২ জনের।
সৌদিআরবে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ২ হাজার ৬৮৬ জন।মোট মৃত্যু ৩ হাজার ৫০৬ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ৭৪ হাজার ৯১ জন।
পাকিস্তানে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৯০ হাজার ৪৪৫ জন।মোট মৃত্যু ৬ হাজার ২০১ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ৭২ হাজার ১২৮ জন।
বাংলাদেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৮৫ হাজার ৯১ জন।এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ৭৮১ জনের।আর ইতিমধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৬৫ হাজার ৭৩৮ জন।
ইতালিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৫৫ হাজার ২৭৮ জন।দেশটিতে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ৩৫ হাজার ৪১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।আর ইতিমধ্যে ইতালিতে সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৪ হাজার ৫০৬ জন।
তুরস্কে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৫৩ হাজার ১০৮ জন।মোট মৃত্যু ৬ হাজার ৩৯ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ৩৩ হাজার ৯১৫ জন।
জার্মানিতে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ২৯ হাজার ৭০০ জন।মোট মৃত্যু ৯ হাজার ৩১৪ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ৩ হাজার ৯০০ জন।
ফ্রান্সে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ২৫ হাজার ৪৩ জন। মারা গেছেন ৩০ হাজার ৪৬৮ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৮৪ হাজার ৬৫ জন।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন