English

33 C
Dhaka
শুক্রবার, মে ২৭, ২০২২
- Advertisement -

বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ১কোটি ৯৫লাখ ৪৩হাজার ৫৬২জন, মৃত্যু ৭লাখ ২৪হাজার ৭৫জনের

- Advertisements -
Advertisements
Advertisements

বিশ্বব্যাপী প্রাণঘাতী করোনার আগ্রাসন চলছে সমান তালে। যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল, ভারত, কলোম্বিয়া, আর্জেন্টিনা, সাউথ আফ্রিকা, মেক্সিকোতে এর থাবা চলছে অবিরাম।বাংলাদেশে করোনার পরীক্ষা তুলনামূলক অনেক কম স্বত্বেও গত ২৪ ঘন্টায় আক্রাতে ইতালীকে পিছনে ফেলে উঠে এসেছে ১৫তম স্থানে। এদিকে কলোম্বিয়া পেছনে ফেলেছে স্পেনকে। কলোম্বিয়ার অবস্থান এখন বিশ্বে ৯ম।গত ২৪ ঘন্টায় পেরু টপকেছে মেক্সিকোকে।
আজ শনিবার (৮ আগস্ট) বাংলাদেশ সময় সকাল ১০টা পর্যন্ত বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ৯৫ লাখ ৪৩ হাজার ৫৬২ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ২ লাখ ৮৫ হাজার ৮৩৯ জন। নতুন করে প্রাণ গেছে ৬ হাজার ৩৮৮ জনের। এ নিয়ে করোনারায় মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ৭ লাখ ২৪ হাজার ৭৫ জন মানুষ।
আর ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ কোটি ২৫ লাখ ৪৫ হাজার ৫৬৭ জন।গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৮৭ হাজার ৯১২ জন।বিশ্বে বর্তমানে মধ্যম মানের আক্রান্ত ৬২ লাখ ৮ হাজার ৯০১ জন বা ৯৯% এবং গুরুতর অসুস্থ্য ৬৫ হাজার ১৯ জন বা ১%।
বিশ্বে এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা সর্বোচ্চ ৫০ লাখ ৯৫ হাজার ৫২৪ জন।গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৬৩ হাজার ২৪৬ জন। সবচেয়ে বেশি মৃত্যুও হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে ১ লাখ ৬৪ হাজার ৯৪ জন।গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ২৯০ জনের। আক্রান্তের মতো সুস্থ হওয়ার দিক থেকেও সবার শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এ পর্যন্ত অন্তত ২৬ লাখ ১৬ হাজার ৯৬৭ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন।
আক্রান্তের ও মৃতের সংখ্যায় যুক্তরাষ্ট্রের পরেই উঠে এসেছে ব্রাজিল। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ২৯ লাখ ৬৭ হাজার ৬৪ জন।গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৪৯ হাজার ৫০২ জন। আর আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৯৯ হাজার ৭০২ জন।গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে মৃত্যু ১ হাজার ৫৮ জনের। এখন পর্যন্ত ব্রাজিলে ২০ লাখ ৬৮ হাজার ৩৯৪ জন সুস্থ হয়েছেন।
প্রতিবেশী দেশ ভারতে গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৬১ হাজার ৪৫৫ জন।মৃত্যু হয়েছে ৯৪০ জনের। আক্রান্তের সংখ্যায় ভারত উঠে এসেছে ৩ নম্বরে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২০ লাখ ৮৬ হাজার ৮৬৪ জন, আর এখন পর্যন্ত মৃত্যু ৪২ হাজার ৫৭৮ জনের।ভারতে সুস্থ হয়েছেন ১৪ লাখ ২৭ হাজার ৬৬৯ জন।
আক্রান্তে চতুর্থ অবস্থানে রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৮ লাখ ৭৭ হাজার ১৩৫ জন।গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ৫ হাজার ২৪১ জন আর মারা গেছেন ১৪ হাজার ৭২৫ জন।অপরদিকে সুস্থ হয়েছেন ৬ লাখ ৮৩ হাজার ৫৯২ জন।
সাউথ আফ্রিকায় মোট আক্রান্ত ৫ লাখ ৪৫ হাজার ৪৭৬ জন।২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ৭ হাজার ২৯২ জন।মোট মারা গেছেন ৯ হাজার ৯০৯ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৩ লাখ ৯৪ হাজার ৭৫৯ জন।
পেরুতে মোট আক্রান্ত ৪ লাখ ৬৩ হাজার ৮৭৫ জন।গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ৮ হাজার ৪৬৬ জন। মোট মৃত্যু ২০ হাজার ৬৪৯ জন।২৪ ঘন্টায় নতুন করে মৃত্যু ২২৫ জনের। আর সুস্থ্য হয়েছেন ৩ লাখ ১৪ হাজার ৩৩২ জন।
মেক্সিকোতে মোট আক্রান্ত ৪ লাখ ৬২ হাজার ৬৯০ জন।গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ৬ হাজার ৫৯০ জন। মোট মৃত্যু ৫০ হাজার ৫১৭ জনের।গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে মৃত্যু ৮১৯ জনের। এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৩ লাখ ৮ হাজার ৮৪৮ জন।
চিলিতে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ৬৮ হাজার ৮২৫ জন।মোট মৃত্যু ৯ হাজার ৯৫৮ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৩ লাখ ৪২ হাজার ১৬৮ জন।
কলোম্বিয়া মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ৬৭ হাজার ১৯৬ জন। মারা গেছেন ১২ হাজার ২৫০ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৯৮ হাজার ৪৯৫ জন।গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ৯ হাজার ৪৭৬ জন।মৃত্যু ৩১১ জনের।
স্পেনে আক্রান্ত ৩ লাখ ৬১ হাজার ৪৪২ জন। গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ৪ হাজার ৫০৭ জন। মৃত্যু ২৮ হাজার ৫০৩ জন আর সেরে উঠেছে ১ লাখ ৯৬ হাজার ৯৫৮ জন।
ইরানে মোট আক্রান্ত ৩ লাখ ২২ হাজার ৫৬৭ জন।মোট মৃত্যু ১৮ হাজার ১৩২ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ৭৯ হাজার ৭২৪ জন।গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ২ হাজার ৪৫০ জন এবং মৃত্যু ১৫৬ জনের।
এর পরের অবস্থানে যুক্তরাজ্য, এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৯ হাজার ৫ জন। মারা গেছেন ৪৬ হাজার ৫১১ জন।
সৌদিআরবে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৮৫ হাজার ৭৯৩ জন।মোট মৃত্যু ৩ হাজার ৯৩ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ৪৮ হাজার ৯৪৮ জন।
পাকিস্তানে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৮২ হাজার ৬৪৫ জন।মোট মৃত্যু ৬ হাজার ৫২ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ৫৮ হাজার ৯৯ জন।
ইতালিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ৪৯ হাজার ৭৫৬ জন।দেশটিতে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ৩৫ হাজার ১৯০ জনের মৃত্যু হয়েছে।আর ইতিমধ্যে ইতালিতে সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ১ হাজার ৬৪২ জন।
তুরস্কে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৩৮ হাজার ৪৫০ জন।মোট মৃত্যু ৫ হাজার ৮১৩ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ২ লাখ ২১ হাজার ৫৭৪ জন।
আর্জেন্টিনায় মোট আক্রান্ত ২ লাখ ৩৫ হাজার ৬৭৭ জন। মারা গেছেন ৪ হাজার ৪১১ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৩ হাজার ২৯৭ জন।গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ৭ হাজার ৫১৩ জন এবং মৃত্যু ১৪৫ জনের।
জার্মানিতে মোট আক্রান্ত ২ লাখ ১৬ হাজার ৩১৫ জন।মোট মৃত্যু ৯ হাজার ২৫৪ জনের এবং সুস্থ্য হয়েছেন ১ লাখ ৯৬ হাজার ২০০ জন।
ফ্রান্সে মোট আক্রান্ত ১ লাখ ৯৭ হাজার ৯২১ জন। মারা গেছেন ৩০ হাজার ৩২৪ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৮২ হাজার ৮৩৬ জন।
এদিকে করোনা আক্রান্তে ১৫তম বাংলাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২ হাজার ৮৫১ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৫২ হাজার ৫০২ জন।গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ২৭ জন। দেশে করোনায় মোট মারা গেছেন ৩ হাজার ৩৩৩ জন। সুস্থ হয়েছে ১ হাজার ৭৬০ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৪৫ হাজার ৫৮৪ জন।
শুক্রবার (৭ আগস্ট) দুপুরে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।
তিনি পিসিআর-ল্যাবরেটরিতে নমুনা পরীক্ষার তথ্য তুলে ধরে জানান, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ হাজার ২৫৩টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় আগের কিছু মিলিয়ে ১২ হাজার ৬৯৯টি নমুনা। এ নিয়ে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো ১২ লাখ ৩৭ হাজার ৮২৩টি। নতুন পরীক্ষায় করোনা মিলেছে দুই হাজার ৮৫১ জনের মধ্যে। এ নিয়ে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল দুই লাখ ৫২ হাজার ৫৯২ জনে। আক্রান্তদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন আরও ২৭ জন। ফলে ভাইরাসটিতে মোট মৃত্যু হলো তিন হাজার ৩৩৩ জনের। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও এক হাজার ৬০ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল এক লাখ ৪৫ হাজার ৫৮৪ জনে।
গত ২৪ ঘণ্টায় যারা মারা গেছেন তাদের পুরুষ ২৪ জন এবং নারী তিনজন। ২৬ জন হাসপাতালে এবং একজন বাসায় মারা গেছেন। এদের মধ্যে চল্লিশোর্ধ্ব চারজন, পঞ্চাশোর্ধ্ব ছয়জন, ষাটোর্ধ্ব ১২ জন, সত্তরোর্ধ্ব চারজন এবং ৮০ বছরের বেশি বয়সী একজন ছিলেন। তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের ছিলেন ১৩ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের তিনজন, রংপুর বিভাগের দুইজন, খুলনা বিভাগের পাঁচজন, রাজশাহী বিভাগের তিনজন এবং বরিশাল বিভাগের ছিলেন একজন। এ পর্যন্ত মৃতদের মধ্যে দুই হাজার ৬৩০ জন পুরুষ (৭৮ দশমিক ৯১ শতাংশ) এবং ৭০৩ জন নারী (২১ দশমিক ০৯ শতাংশ)।
শুক্রবারের বুলেটিনে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার তুলনায় রোগী শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৪৫ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষার তুলনায় রোগী শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৪০ শতাংশ। আর রোগী শনাক্ত তুলনায় সুস্থতার হার ৫৭ দশমিক ৬৬ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩১ শতাংশ।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন