English

31.1 C
Dhaka
বুধবার, মে ২৫, ২০২২
- Advertisement -

আস্থা ভোটের ফল প্রত্যাখ্যান করে পাকিস্তান প্রধানমন্ত্রীকে ‘ভুয়া’ সম্বোধন

- Advertisements -

পাকিস্তানের সংসদে অনুষ্ঠিত আস্থা ভোটে জেতার জন্য ইমরান খানের প্রয়োজন ছিল ১৭২ ভোট। তিনি পেয়েছেন ১৭৮ ভোট। মাত্র ছয় ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তবে ভোটের ফল প্রত্যাখ্যান করে বিরোধীরা তাকে ‘ভুয়া’ প্রধানমন্ত্রী বলে সম্বোধন করেছে।

Advertisements

অভিযোগ উঠেছে, ‘ইমরান খানকে জেতানোর জন্য বলপ্রয়োগ করে ভোট নেওয়া হয়েছে। এ জন্য গত শনিবার (৬ মার্চ) বলপ্রয়োগ করে ভোট নেওয়া হয়েছে।’

ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলি অধিবেশন শেষে পাকিস্তান ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট (পিডিএম) এবং জইফ প্রধান মাওলানা ফজলুর রেহমান বলেন, ‘সংবিধানে স্পষ্টভাবে বলা আছে, রাষ্ট্রপতি যদি মনে করেন যে প্রধানমন্ত্রী সংখ্যাগরিষ্ঠতা রাখেন না; তাহলে তিনি  একটি অধিবেশন ডাকতে পারেন। এখানে সংক্ষিপ্ত অধিবেশন ডেকেছেন ভুয়া প্রধানমন্ত্রী। এর পুরোটাই নাটক। আজকের এই অধিবেশন আমরা মানি না। আর এই আস্থা ভোটও আমরা মানি না।’

তিনি আরও বলেছেন, ‘ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলির সদস্যদের জোর করে ইমরান খানের পক্ষে ভোট দিয়ে নেওয়া হয়েছে।’

Advertisements

এর আগে পাকিস্তান সরকারের অর্থমন্ত্রী আব্দুল হাফিজ শেখ সিনেট আসনে ভোটে হেরে যান। তার পরাজয় শাসকদলকে অস্বস্তির মধ্যে ফেলে দেয়। আসনে জয় পান ইউসুফ রাজা গিলানি। এরপর ইমরান খান নিজে থেকেই সংসদে আস্থা ভোটের আয়োজন করেন।

পাকিস্তানের দ্বিতীয় প্রধানমন্ত্রী হিসেবে অ্যাসেম্বলিতে আস্থা ভোট নিতে হলো ইমরান খানকে। এর আগে নওয়াজ শরিফ আস্থা ভোটের কবলে পড়েন।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ

উপস্থাপনায় বুবলী

- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন