English

29 C
Dhaka
মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২
- Advertisement -

এবার বিচার বিভাগের বিরুদ্ধে ট্রাম্পের মামলা

- Advertisements -

এবার মার্কিন বিচার বিভাগের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার বাড়ি থেকে ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই) যেসব নথিপত্র জব্দ করেছে সে বিষয়ে তদন্ত স্থগিত করার জন্য আবেদন করেছেন তিনি। খবর বিবিসির।

ফ্লোরিডার মার এ লাগোয় ডোনাল্ড ট্রাম্পের বাড়ি থেকে গত ৮ অগাস্ট ১১ সেট গোপনীয় কাগজপত্র জব্দ করে এফবিআই এজেন্টরা। সেগুলোর মধ্যে কিছু নথি গোপনীয়। কিছু দলিলপত্রে এমন সব তথ্য আছে যা যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য ‘নজিরবিহীন গুরুতর ক্ষতির’ কারণ হতে পারে বলে এফবিআই কর্মকর্তারা উল্লেখ করেছেন।

আদালতে দায়ের করা ওই মামলায় ট্রাম্পের আইনজীবীরা অনুরোধ করেছেন, সেসব নথিপত্র যাচাই করার সময় যেন একজন নিরপেক্ষ আইনজীবী নিয়োগ দেওয়া হয়। রাষ্ট্রীয় নথিপত্র আইনমাফিক সংরক্ষণ না করার অভিযোগে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের আইনজীবীরা সোমবার আদালতে বলেছেন, একজন থার্ড পার্টি অ্যাটর্নি যেন নিয়োগ দেওয়া হয়, যিনি যাচাই করে দেখবেন যে, এসব নথিপত্র নির্বাহী সুবিধার আওতায় পড়ে কি না। এই থার্ড পার্টি অ্যাটর্নিকে বলা হয় স্পেশাল মাস্টার।

Advertisements

সেটা হলে বেশ কিছু যোগাযোগের রেকর্ড সাবেক প্রেসিডেন্টকে জনসমক্ষে প্রকাশ করতে হবে না। সাধারণত এ ধরনের স্পেশাল মাস্টার ফৌজদারি মামলায় নিয়োগ করা হয়। সেসব ক্ষেত্রে এটা করা হয় যখন মামলার কিছু প্রমাণ ‘আইনজীবী-খদ্দের সুবিধা’ আইনের মধ্যে পড়ে যায়। অথবা এমন কোন প্রমাণ থাকে, যা আইনের কারণে আদালতে উপস্থাপন করা যায় না।

মামলার আবেদনে বলা হয়েছে, অর্থপূর্ণ সুরক্ষা ছাড়া প্রসিকিউশনকে এসব নথিপত্র যাচাই করতে দেওয়া গ্রহণযোগ্য হবে না। প্রেসিডেন্ট তার দাপ্তরিক দায়িত্ব পালনের সময় যেসব আলোচনা করেছেন, সেগুলো নিরপেক্ষভাবে পর্যালোচনা করে যাচাই বাছাইয়ের মাধ্যমে শুধুমাত্র একজন স্পেশাল মাস্টার জনস্বার্থ রক্ষা করতে পারে।

মার্কিন বিচার বিভাগ এক বিবৃতিতে বলেছে, ট্রাম্পের মামলা সম্পর্কে কৌসুঁলিরা অবগত রয়েছেন। আদালতে এ বিষয়ে জবাব দেওয়া হবে। একটি ফেডারেল কোর্টে কারণ দেখানোর পরেই মার এ লাগোর বাড়িতে তল্লাশি করার পরোয়ানা জারি হয়েছিল।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের মামলার আবেদনটি করা হয়েছে ফ্লোরিডার ওয়েস্ট পাম বীচের এমন একজন বিচারকের আদালতে যাকে ২০২০ সালে ট্রাম্প মনোনয়ন দিয়েছিলেন। এদিকে ট্রাম্পের মুখপাত্র টেইলর বুডোউইচ নথিপত্র জব্দের ঘটনাকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে অভিহিত করেছেন।

এই প্রথম যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক কোনো প্রেসিডেন্টের বাড়িতে অপরাধ তদন্তে অভিযান চালানো হয়েছে। তার বাড়ি থেকে যেসব নথিপত্র জব্দ করা হয়েছে তার একটি তালিকা শুক্রবার বিকেলে প্রকাশ করা হয়েছে।

এর আগে এক বিচারক সাত পৃষ্ঠার একটি নথি প্রকাশ করেন যার মধ্যে ছিল ফ্লোরিডার পাম বীচে ট্রাম্পের বাসভবন মার এ লাগোতে তল্লাশি চালানোর জন্য একটি পরোয়ানার অনুমোদনপত্র।

এতে বলা হয়, সোমবার তার বাড়ি থেকে বিশটির বেশি বাক্স ভর্তি কাগজপত্র জব্দ করা হয়েছে। এসব বাক্সে ছিল একটি অ্যালবাম, হাতে লেখা একটি নোট, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট সম্পর্কে কিছু তথ্য এবং ট্রাম্পের দীর্ঘদিনের ঘনিষ্ঠ মিত্র রজার স্টোনের পক্ষ হয়ে লেখা একটি ক্ষমা প্রদর্শনের চিঠি।

Advertisements

সর্বোচ্চ গোপনীয় বলে চিহ্ণিত নথিপত্রের চারটি ফাইল ছাড়া আরও জব্দ করা কাগজপত্রের মধ্যে রয়েছে তিন সেট অতি গোপন দলিল এবং আরও তিন সেট অপেক্ষাকৃত কম গোপনীয় দলিল।

গুপ্তচর আইন লংঘনের তদন্ত
তার বিরুদ্ধে জারি করা এই পরোয়ানা থেকে ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে যে, ট্রাম্প দেশটির গুপ্তচর আইন লংঘন করে থাকতে পারেন কি না এফবিআই সেটা তদন্ত করে দেখছে। এই আইন অনুযায়ী, জাতীয় নিরাপত্তার জন্য সম্ভাব্য ঝুঁকিপূর্ণ তথ্য নিজের কাছে রাখা বা তা পাচার করা অবৈধ।

গোপনীয় বলে চিহ্ণিত যে কোন নথি বা অন্যান্য জিনিস সরিয়ে নেওয়া আইনে নিষিদ্ধ। ট্রাম্প যখন ক্ষমতায় ছিলেন, তখন এই অপরাধে সাজা তিনি আরও কঠোর করেছিলেন। বর্তমানে এই অপরাধে পাঁচ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে।

পরোয়ানাতে বলা হয়েছে, ট্রাম্পের ফ্লোরিডার বাড়ি মার এ লাগোর ‘৪৫ অফিস’ নামে চিহ্ণিত একটি এলাকা এবং সেখানকার গুদাম ঘরগুলোতে তল্লাশি চালানো হয়েছে। ট্রাম্প এবং তার কর্মচারীরা যে ব্যক্তিগত অতিথি ভবনগুলো ব্যবহার করেন, সেগুলোতে কোন তল্লাশি চালানো হয় না।

বিচার মন্ত্রণালয় বৃহস্পতিবার আদালতকে তল্লাশি সংক্রান্ত কাগজপত্র সাধারণের জন্য প্রকাশ করে দিতে বলে। কোন তদন্ত চলাকালীন এ ধরনের পদক্ষেপ খুবই বিরল। গত ৫ আগস্ট তল্লাশি চালানোর জন্য বিচারক অনুমোদন দেন এবং তল্লাশি চালানো হয় সোমবার (৮ আগস্ট)

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন