English

32 C
Dhaka
শুক্রবার, জুলাই ১, ২০২২
- Advertisement -

ওমিক্রন ‌‘ঝড়ে’র মধ্যে বিধিনিষেধ কঠোর করছে ফ্রান্স

- Advertisements -

মহামারী করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন নিয়ে উদ্বেগের মধ্যে ফ্রান্স কঠোর কোভিড বিধিনিষেধ আরোপ করতে যাচ্ছে। আগামী ৩ জানুয়ারি থেকে এ বিধিনিষেধ কার্যকর হবে। সামর্থ্য আছে এমন ব্যক্তিদের জন্য বাসায় থেকে কাজ করা বাধ্যতামূলক করা হবে। ঘরোয়া অনুষ্ঠানে জনসমাবেশ দুই হাজার জনের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে।

শনিবার ফ্রান্সে ১ লাখেরও বেশি নতুন সংক্রমণ রেকর্ড করা হয় যা মহামারী শুরুর পর থেকেই সর্বোচ্চ। এর মধ্যেই নতুন বিধিনিষেধের ঘোষণা এসেছে। তবে নববর্ষ উদযাপনের ক্ষেত্রে তা প্রযোজ্য হবে না।

Advertisements

করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় এবং ওমিক্রন ছড়িয়ে পড়ায় ইউরোপজুড়ে দেশগুলো নতুন করে বিধিনিষেধ আরোপ করছে।

গবেষণায় দেখা গেছে, করোনার নতুন ধরণ ওমিক্রন ডেল্টার চেয়ে কম বিপজ্জনক, এতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার হার কম। কিন্তু ব্যাপক হারে ছড়িয়ে পড়ায় হাসপাতালে চাপ বৃদ্ধির আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ফরাসি প্রধানমন্ত্রী জিন কাস্টেক্স বলেছেন, করোনাভাইরাস মহামারীকে মনে হচ্ছে সমাপ্তিহীন চলচ্চিত্রের মতো।

দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী অলিভিয়ের ভেরান বলেছেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতি দুই দিনে দ্বিগুণ হচ্ছে।

Advertisements

ফ্রান্সে নতুন বিধিনিষেধের মধ্যে রয়েছে, বাইরে জনসমাবেশের অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা ৫ হাজার জনের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে – এবং দীর্ঘ দূরত্বের পরিবহনে খাওয়া ও পান করার উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নাইটক্লাবগুলি বন্ধ থাকবে এবং ক্যাফে এবং বারগুলি শুধু টেবিলে খাবার পরিবেশন করতে পারবে। যে কর্মচারীরা বাড়ি থেকে কাজ করেন তাদের সপ্তাহে অন্তত তিন দিন তা করতে হবে। শহরের কেন্দ্রে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক হবে।

সরকার বুস্টার ডোজ দেওয়ার সময়সীমা চার মাস থেকে কমিয়ে তিন মাস করতে যাচ্ছে।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন