English

30 C
Dhaka
সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২২
- Advertisement -

করুণ গল্প শোনালেন কাবুলের শিক্ষিকা

- Advertisements -

তালেবানের হাতে কাবুল। আফগানিস্তান থেকে যুক্তরাষ্ট্র সেনা প্রত্যাহারের পর দ্রুতই আফগানিস্তানের রাজধানী দখল করে সশস্ত্র অস্ত্রধারীরা। এরপর থেকে অনেকে মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে যেকোনো মূল্যে দেশ ছাড়তে। এমন এক পরিস্থিতিতে বিবিসি রেডিও-৪-কে করুণ গল্প শুনিয়েছেন দেশটিতে আটকে পড়া এক শিক্ষিকা। এ নিয়ে আজ শনিবার (২১ আগস্ট) একটি প্রতিবেদন প্রকাশ হয়েছে।

Advertisements

ওই নারী শিক্ষক কাবুলের কোনো এক জায়গায় লুকিয়ে আছেন। তালেবান কাবুল দখলের পর জীবনযাত্রা কিভাবে বদলে গেছে? তাঁকে এমন প্রশ্ন করা হলে, তিনি বলেন, এখানের প্রতিটি দৃষ্টিভঙ্গিই আলাদা। তিনি এখন বন্দিদশায় আছেন বলেও জানান।

শিক্ষিকা বলেন, আমরা বাড়িতে আটকা পড়েছি। আমরা এখানে বন্দিদের মতো বাস করছি। বাইরে যেতে পারছি না। আমরা ব্যাংক, হাসপাতাল, বিশ্ববিদ্যালয়, স্কুলে যেতে পারছি না। এখানে সবকিছু বন্ধ। তিনি বলেন, আমার একটা চাকরি ছিল। আমি বিশ্ববিদ্যালয়ে যাচ্ছিলাম। কিন্তু সবকিছু বন্ধ করে দিয়েছে। তাই এখন আমি বাড়িতে আছি। এভাবে থাকা খুব কঠিন।

Advertisements

কাবুলের যে নারীরা বাড়ির বাইরে বের হন, রাস্তায় যান; তাদের সঙ্গে কেমন আচরণ করা হয়? এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, তার এক নারী বন্ধু বাড়ির বাইরে বের হলে তালেবান সদস্যরা তাঁর দিকে চেঁচিয়ে আসেন। তারা (তালেবান সদস্যরা) তাকে জিজ্ঞাসা করেন, কেন তিনি স্বামী বা বাবা বা ভাই ছাড়া বাইরে বের হলেন। তিনি কেন হিজাব পরেননি তা-ও জানতে চাওয়া হয়।

ভবিষ্যতে কি হতে পারে? এ বিষয়ে তিনি বলেন, আমরা আবার ২০০১ সালের পরিস্থিতির মতো দেখছি। তিনি আশঙ্কা করছেন, পরিস্থিতি আরো খারাপ হতে পারে। তিনি বলেন, আমি আমার লক্ষ্য, স্বপ্ন ও আকাঙ্ক্ষা নিয়ে চিন্তিত। আমার ধারণা তারা সবগুলো শেষ করে দেবে। সুযোগ পেলে তিনি দেশ ছাড়বেন বলেও জানান।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন