English

24 C
Dhaka
মঙ্গলবার, মার্চ ৫, ২০২৪
- Advertisement -

ডিপফেকের শিকার এবার পশ্চিমবঙ্গের তরুণী

- Advertisements -

সম্প্রতি ডিপফেক ইস্যু নিয়ে রীতিমতো ঝড় উঠেছে ভারতে। দেশটিতে একের পর এক তারকা অত্যাধুনিক এই প্রযুক্তির অপব্যবহারের শিকার হচ্ছেন। সম্প্রতি দক্ষিণী অভিনেত্রী রাশ্মিকা মন্দনার ডিপফেক ভিডিও নিয়ে তোলপাড় হয়েছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিয়েও ডিপফেক ভিডিও বানানো হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এবার সেই ডিপফেকের ভয় দেখিয়ে এক তরুণীর কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে পশ্চিমবঙ্গের হুগলিতে।

ওই তরুণীর মুখচ্ছবি ব্যবহার করে ডিপফেকের মাধ্যমে অশ্লীল ভিডিও বানিয়ে ভাইরাল করার ভয় দেখিয়ে কয়েক হাজার টাকা হাতিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ। তবে টাকা দেওয়ার পরেও রেহাই মেলেনি। আরও টাকা চাইতে থাকে প্রতারকরা।

Advertisements

এভাবে বারবার হেনস্তার শিকার হয়ে সেই তরুণী অফিসের এক সহকর্মীর কাছে গোটা ঘটনা খুলে বলেন। তার পরামর্শেই পরে পুলিশের দ্বারস্ত হওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি।

জানা গেছে, হুগলি জেলার মানকুন্ডুর ওই তরুণী মোবাইলে আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের ম্যাচ দেখছিলেন। সেই সময় তার মোবাইলে একটি মেসেজ আসে। মেসেজে ক্লিক করতেই একটি অ্যাপ ডাউনলোড হয়ে যায়। এরপর একটি নোটিফিকেশন আসে তরুণীর মোবাইলে। সেই অ্যাপে নিজের মোবাইল নম্বর দিয়ে দেন তরুণী। সঙ্গে সঙ্গে তার ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে ১১ হাজার রুপি পাঠানো হয়। তবে সেই অর্থ ঋণ হিসেবে দেখানো হয়। হঠাৎ এত অর্থ আসায় তরুণী অবাক হন।

এ ঘটনার দুদিন পর ওই তরুণীর মোবাইল নম্বরে ফোন আসতে শুরু করে। তাকে টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য চাপ দেওয়া হয়। এমনকি টাকা ফেরত না দিলে ডিপফেক দিয়ে অশ্লীল ছবি ও ভিডিও বানিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়।

কয়েক দিনের মধ্যেই ওই তরুণীর ফোনের কন্ট্যাক্ট লিস্টে থাকা বেশ কয়েক জনের কাছে ডিপফেক দিয়ে অশ্লীল ভিডিও-ছবি বানিয়ে পাঠাতে শুরু করে প্রতারকরা।

Advertisements

এ ঘটনার পর সম্মানহানির ভয়ে তরুণী ১৯ হাজার রুপি অনলাইনে পাঠায় প্রতারকদের কাছে। তারপরও উৎপাত ক্রমাগত বাড়তেই থাকে। প্রতারকরা বুঝে যায়, তরুণী ভয় পেয়েছে। তারা আবারও টাকা চেয়ে ফোন দিতে থাকে।

এরপর সেই তরুণী গত শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) হুগলি জেলার ভদ্রেশ্বর থানায় যান। সেখান থেকে পরামর্শ দেওয়া হয় চন্দননগর পুলিশ কমিশনারেটের সাইবার ক্রাইম থানায় চুঁচুড়া গিয়ে অভিযোগ দায়ের করার। সেই অনুযায়ী সাইবার ক্রাইম থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন তরুণী।

পুলিশ জানিয়েছে, ফ্ল্যাশ মেসেজের মাধ্যমে ফোনে ক্লোনিং অ্যাপ ডাউনলোড করিয়ে হ্যাকাররা বহু মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। এখন ভয় দেখাতে ডিপফেক প্রযুক্তিকেও হাতিয়ার করছে তারা।

এগুলো থেকে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের সাবধান হতে হবে। এ ধরনের ফোন কিংবা মেসেজে এলে সঙ্গে সঙ্গে তা ব্লক করার পরামর্শ দিয়েছে পুলিশ।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ

আজকের রাশিফল

আল কোরআন ও আল হাদিস

- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন