English

29 C
Dhaka
শুক্রবার, ডিসেম্বর ২, ২০২২
- Advertisement -

বিজেপি বিধায়কের মন্তব্য: ‘নারীদের পোশাকের কারণেই বাড়ছে ধর্ষণ’

- Advertisements -

এবার নারীদের পোশাক নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করলেন ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপির এক বিধায়ক। কর্নাটকের বিধায়ক রেণুকাচার্য মন্তব্য করে বলেছেন, “নারীদের ধর্ষেণের পিছনে এমন সব পোশাক দায়ী যা পুরুষদের উত্তেজিত করে।”

Advertisements

রেণুকাচার্যের দাবি, মেয়েদের স্কুল, কলেজে এমন ইউনিফর্ম পরা উচিত যা তাদের পুরো শরীর ঢেকে দেয়।

এদিকে এমন মন্তব্যের জেরে বিতর্ক সৃষ্টি হতে পারে বলে বুঝতে পেরে মুখ্যমন্ত্রীর রাজনৈতিক সচিব বলেন, বিজেপি বিধায়কের বক্তব্য যদি নারীদের আঘাত করে থাকে তাহলে তাদের কাছে ক্ষমা চাইবেন তিনি।

উল্লেখ্য, কর্নাটকের হোনালির এই বিধায়ক হিজাব নিয়ে কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর টুইটের প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে এই বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেন।

Advertisements

এর আগে টুইট করে প্রিয়াঙ্কা দাবি করেছিলেন, বিকিনি, জিনস, উড়না, হিজাব যা খুশি পরতে পারেন নারীরা। বিজেপিকে আক্রমণ শানিয়ে প্রিয়াঙ্কা টুইটে লেখেন, “বিকিনি হোক, উড়না হোক, জিনস হোক বা হিজাব হোক, তিনি কী পরতে চান তার সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার একজন নারীরই আছে। এই অধিকার ভারতীয় সংবিধানে নিশ্চিত করা হয়েছে। নারীদের হেনস্থা করা বন্ধ করুন।”

এর জবাবে বিজেপি বিধায়ক রেণুকাচার্য বলেন, “প্রিয়াঙ্কা গান্ধী একজন নারী, একজন কংগ্রেস নেতা… আমরা নারীদের মৌলিক অধিকার (হিজাব ইস্যুতে) নিয়ে প্রশ্ন তুলছি না। কেরালা এবং মুম্বাই হাইকোর্ট বলেছে যে স্কুল এবং কলেজগুলোতে ইউনিফর্ম বাধ্যতামূলক, সরকারও একই কথা বলেছে। মেয়ে ছাত্রীর (পোশাক) জন্য বিকিনি শব্দ ব্যবহার করা উপেক্ষাযোগ্য। কলেজে পড়ার সময় ছাত্রীদের ইউনিফর্ম বা এমন পোশাক পরা উচিত যা তাদের শরীরকে পুরোপুরি ঢেকে রাখে। নারীদের কিছু পোশাক পুরুষদের উত্তেজিত করে বলে ধর্ষণের ঘটনা বাড়ছে, যা ভালো নয়, কারণ আমাদের দেশে নারীদের সম্মান আছে, আমরা তাদের মা হিসেবে গণ্য করি।”

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন