English

30 C
Dhaka
রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২২
- Advertisement -

বিয়ের রাতেই স্ত্রীকে হত্যা, ২১ বছরের কারাদণ্ড

- Advertisements -

বিয়ের রাতেই স্ত্রীকে খুন করেন থমাস নাট। এরপর সেই মরদেহ কেটে একটি সুটকেসে ভরে লুকানোর চেষ্টা করেন তিনি। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। অবশেষে বিয়ের কয়েক দিনের মাথায় উদ্ধার করা হয় ডন ওয়াকারের খণ্ড বিখণ্ড মরদেহ। এই অপরাধের জন্য থমাস নাটকে ২১ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

Advertisements

স্কাই নিউজের খবরে জানানো হয়, গত বছরের ২৭শে অক্টোবর থমাসকে (৪৬) বিয়ে করেছিলেন ওয়াকার (৫২)। বিয়ের ৪ দিনের মাথায়ই ওয়াকারের মরদেহ পাওয়া যায়। এ মাসের প্রথম দিকে থমাসের বিরুদ্ধে থাকা ওয়াকারকে হত্যার অভিযোগ প্রমাণিত হয়। এর ভিত্তিতে বৃটেনের ব্রাডফোর্ড ক্রাউন কোর্ট শুক্রবার তাকে ২১ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে।

রায়ে বিচারক জনাথন রোজ বলেন, ওয়াকারকে হত্যার পর থমাস তার মরদেহ একটি সুটকেসে ভরে ফেলে। এরপর সেটিকে পশ্চিম ইয়র্কশায়ারের তাদের বাড়ির পেছনের জঙ্গলে পুতে ফেলে সে। সুটকেসে ঢুকানোর জন্য ওয়াকারের হাড় ভেঙে টুকরো টুকরো করে থমাস।

Advertisements

হত্যার পর ওয়াকারকে নিয়ে মিথ্যা গল্পও সাজিয়েছিলেন থমাস। তিনি তার পরিবারকে জানান, ওয়াকার পাগল হয়ে গেছে এবং অন্য কোথাও চলে গেছে। সেটি প্রমাণে ওয়াকারের মোবাইল থেকে তার পরিবারের কাছে মিথায় মেসেজও পাঠান থমাস।

যদিও এরপরই নিজের কাজের জন্য হতাশাগ্রস্থ হয়ে পড়েন তিনি। তাই নিজেই পুলিশের কাছে গিয়ে সব ঘটনা প্রকাশ করেন থমাস। তিনি বলেন, ওয়াকার বিয়ের পরপরই ডিভোর্সের জন্য চাপাচাপি শুরু করেছিল। এর আগেও সে আমাকে একবার জেলে পাঠিয়েছিল। সে আবারও একই কাজ করতো। এ জন্য সে ঘরের মধ্যে চিৎকার করতে শুরু করে এবং তার মুখে আঘাত করা ছাড়া তাকে থামানোর কোনো উপায় ছিল না। আর এতেই তার মৃত্যু হয়।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন