English

27 C
Dhaka
রবিবার, আগস্ট ১৪, ২০২২
- Advertisement -

বেফাঁস মন্তব্যে হারালেন মন্ত্রীত্ব!

- Advertisements -
Advertisements
Advertisements

লিবিয়ার প্রেসিডেন্সিয়াল কাউন্সিলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী নাজলা মঙ্গুশকে বরখাস্ত করা হয়েছে। একইসাথে তার ভ্রমণের ব্যাপারেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। দেশটির কাউন্সিলের সাথে পররাষ্ট্রনীতির সমন্বয় না করার অভিযোগে গত শনিবার তার বিরুদ্ধে এই শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়।
লিবিয়া কাউন্সিলের একটি ডিক্রি অনুসারে, লিবিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসাবে দায়িত্ব পালনকারী তিন সদস্যের সংস্থাটি পররাষ্ট্রমন্ত্রী নাজলা মঙ্গুশকে বরখাস্ত করেছে। পাশাপাশি পররাষ্ট্রনীতির একচেটিয়াকরণের অভিযোগ এনে তদন্তের স্বার্থে তার বিদেশ ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়। প্রেসিডেনশিয়াল কাউন্সিলের মুখপাত্র নায়লা উইহেবা জানান, নাজলা আল-মানগোসের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক বিধি লঙ্ঘন করার অভিযোগ উঠেছে। এ বিষয়ে তদন্ত করা হবে।
লিবিয়া বিষয়ক বিশেষজ্ঞ এমাদেদিন বাদি বলেছেন, সম্প্রতি বিবিসিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারের কিছু কথার জন্য নাজলা মঙ্গুশের বিরুদ্ধে এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। মানগোস ওই সাক্ষাৎকারে ১৯৮৮ সালের লকারবি বিস্ফোরণ নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য করেছেন। এছাড়া নির্বাচন নিয়ে লিবিয়ার রাজনীতিবিদদের মধ্যে বিদ্যমান উত্তেজনাও এর কারণ।
তবে লিবিয়ার জাতীয় ঐক্যের অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গতকাল রবিবার (৭ নভেম্বর) এক বিবৃতিতে কাউন্সিলের এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করেছে। দেশটির সরকারের ফেসবুক পেজে জারি করা বিবৃতিতে মন্ত্রীর প্রশংসা করে বলা হয়েছে, নাজলা মঙ্গুশ তার দায়িত্ব স্বাভাবিকভাবে পালন করবেন। আরও বলা হয়েছে, রাষ্ট্রপতি পরিষদের নির্বাহী কর্তৃপক্ষের সদস্যদের নিয়োগ বা বাতিল ও তাদের বিষয়ে তদন্ত করার কোন আইনি অধিকার নেই। এই ক্ষমতা শুধু প্রধানমন্ত্রীর।
আগামী শুক্রবার ফ্রান্সে লিবিয়া সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক সম্মেলনটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। সেখানে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রো, মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসসহ অনেকের যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে। যুদ্ধবিধ্বস্ত লিবিয়ায় স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে নতুন করে চেষ্টা চালাতে আহূত আন্তর্জাতিক সম্মেলনের কয়েক দিন আগে নাজলা মঙ্গুশকে বরখাস্তের ঘটনাটি ঘটল।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন