English

28 C
Dhaka
শনিবার, এপ্রিল ১৩, ২০২৪
- Advertisement -

মার্চে সেনজেন জোনে প্রবেশ করবে রোমানিয়া-বুলগেরিয়া

- Advertisements -

ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) পাসপোর্টমুক্ত অঞ্চল শেনজেনে ঢুকতে যাচ্ছে রোমানিয়া ও বুলগেরিয়া। ২০২৪ সালের মার্চ থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন রোমানিয়ার প্রধানমন্ত্রী মার্সেল সিওলাকু। ২০০৭ সাল থেকে ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) সদস্য দেশ দুটি।

ইউরোপভিত্তিক বার্তা সংস্থা পলিটিকোর প্রতিবেদন অনুসারে, এক বিবৃতিতে রোমানিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গত ২৩  ডিসেম্বর রোমানিয়ান, অস্ট্রিয়ান ও বুলগেরিয়ান কর্তৃপক্ষ একটি চুক্তিতে পৌঁছেছে।

ওই এ চুক্তিতেই রোমানিয়া ও বুলগেরিয়ায় শেনজেন জোনের সম্প্রসারণ ও দেশ দুটিকে ২০২৪ সালের মার্চ থেকে শেনজেনের আকাশ ও সমুদ্র অঞ্চলে অন্তর্ভুক্তির বিষয় রয়েছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, চুক্তি হলেও এটির বাস্তবায়নে শেনজেনভুক্ত সব সদস্য রাষ্ট্রের আনুষ্ঠানিক অনুমোদন লাগবে। তাই ২০২৪ সালে শেনজেন জোনের বিস্তৃতি রোমানিয়া ও বুলগেরিয়ার স্থল সীমান্ত পর্যন্ত প্রসারিত করতে আলোচনা অব্যাহত থাকবে।

বর্তমানে শেনজেনভু্ক্ত দেশের সংখ্যা ২৭টি। তাদের মধ্যে ইউরোপীয় ইউনিয়নে ২৩টি দেশ রয়েছে। সেগুলো হলো- বেলজিয়াম, ডেনমার্ক, জার্মানি, এস্তোনিয়া, ফিনল্যাণ্ড, ফ্রান্স, গ্রিস, হাঙ্গেরি, ইতালি, লাটভিয়া, লিচেনস্টাইন, লিথুনিয়া, লুক্সেমবার্গ, মালটা, নেদারল্যান্ড, অস্ট্রিয়া, পোল্যান্ড, পর্তুগাল, স্লোভেনিয়া, স্লোভাকিয়া, স্পেন, চেক প্রজাতন্ত্র, সুইডেন ও ক্রোয়েশিয়া। ইইউয়ের বাইরের দেশগুলো হলো- সুইজারল্যান্ড, নরওয়ে আইসল্যান্ড ও লিচেনস্টাইন

এর আগে রোমানিয়া ও বুলগেরিয়ার শেনজেনে অন্তর্ভূক্ত করার বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরে ভেটো দিয়ে আসছিল অস্ট্রিয়া ও নেদারল্যান্ডস। অবৈধ অভিবাসন নিয়ে উদ্বেগের কারণে অস্ট্রিয়া এর বিরোধিতা করেছিল।

তবে চলতি ডিসেম্বরের মাঝামাঝি অস্ট্রিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী গেরহার্ড কার্নার ভিয়েনার অবস্থানকে নরম করার ঘোষণা দিয়েছিলেন। তবে শর্ত ছিল রোমানিয়া ও বুলগেরিয়াকে কঠোর সীমান্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে। অন্যদিকে, নেদারল্যান্ডস বলেছিল, বুলগেরিয়ার বিচার বিভাগসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ব্যাপক দুর্নীতিবিরোধী সংস্কার করা উচিত।

শেনজেন হলো লুক্সেমবার্গের ছোট্ট একটি গ্রাম যা ফ্রান্স, জার্মানি ও লুক্সেমবার্গের সীমান্তে অবস্থিত। এই গ্রামে ১৯৮৫ সালে ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত পাঁচটি দেশ নিজেদের মধ্যে থাকা অভ্যন্তরীণ সীমান্ত তুলে দেওয়ার বিষয়ে একমত হন। পরবর্তী সময়ে ১৯৯০ সালে শেনজেন কনভেনশন সই হয়। এরপর থেকে একে একে ২৭টি দেশ শেনজেনভুক্ত হয়।

এসব দেশ নিজেদের মধ্যে সীমানা বাধা তুলে নিয়েছে। যার অর্থ, শেনজেনভুক্ত এক দেশ থেকে অপর দেশে যেকোনো নাগরিক অবাধে ভ্রমণ করতে পারেন। শেনজেনভুক্ত যে কোনো দেশের ভিসায়‘শেনজেন ভিসা’ কথাটা লেখা থাকে। এ ভিসা দিয়ে শেনজেনভুক্ত দেশগুলোর নাগরিক ছাড়াও বাইরের দেশের নাগরিকরাও এই ২৭টি দেশে ভ্রমণ করতে পারেন। এ কারণে বিশ্বজুড়ে এই ভিসার ব্যাপক চাহিদা রয়েছে।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন