English

35 C
Dhaka
বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০২৪
- Advertisement -

রাসেলস ভাইপারকে লাথি মেরে হাসপাতালে যুবক

- Advertisements -
Advertisements
Advertisements

রাসেলস ভাইপার সাপকে লাথি দিয়ে মারতে গিয়ে ইব্রাহিম (৪০) নামের এক যুবক ছোবল খেয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

সোমবার (২৪ জুন) রাতে শরীয়তপুরের নড়িয়া বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তিনি শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

ইব্রাহিম চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ভোলাহাট থানার মোহাম্মদ মোকলেছের ছেলে।

সাপের ছোবল খাওয়া ইব্রাহিম জানান, তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা থেকে শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলায় কাজের উদ্দেশ্যে এসেছিলেন। সোমবার রাতে মালিকের বাসায় খাবার খেয়ে নড়িয়া ব্রিজ এলাকার নদীর পাড়ে হাঁটাহাঁটি করছিলেন। এসময় তিনি একটি রাসেলস ভাইপার সাপ দেখে চিৎকার করে লোকজন জড়ো করেন। লোকজন জড়ো হলে সাপটিকে লাথি মারতে গেলে তার পায়ে কামড় বসিয়ে দেয় সাপটি। পরে তিনি ইট দিয়ে সাপটিকে মেরে ফেলেন এবং দ্রুত মোটরসাইকেলে জেলা সদর হাসপাতালে চলে আসেন।

হাসপাতালের চিকিৎসকরা রক্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ইব্রাহিমের শরীরে বিষ প্রবেশ করেনি বলে জানায়। তবুও তাকে হাসপাতালে ভর্তি নিয়ে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের কনসালটেন্ট (মেডিসিন) কনক জ্যাতি মন্ডল বলেন, সোমবার রাত ১১টায় ইব্রাহিম হাসপাতালে আসেন। তাকে যে সাপটি ছোবল দিয়েছে, মোবাইলে সেই সাপটির ছবি দেখান তিনি। আসলে সাপটির নাম রাসেলস ভাইপার। আমরা রোগীর রক্ত পরীক্ষা করেছি। পরীক্ষায় দেখা গেছে, রাসেলস ভাইপার সাপটি তাকে ছোবল দিয়ে শরীরে বিষ প্রয়োগ করতে পারেনি। তাই আমরা রোগীকে পর্যবেক্ষণে রেখেছি।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন