English

23 C
Dhaka
সোমবার, জানুয়ারি ২৪, ২০২২

কুষ্টিয়ার মিরপুরে কবর দেওয়ার ২৭ বছর পর মিলল অক্ষত লাশ!

- Advertisement -spot_img

কুষ্টিয়ার মিরপুরে দাফনের ২৭ বছর পর মঞ্জুর মল্লিক নামে এক ব্যক্তির অক্ষত লাশ শনাক্ত হয়েছে। শুক্রবার সকালে মিরপুর উপজেলার কুর্শা ইউনিয়নের মাজিহাট খাঁ পাড়া গ্রামে চাঞ্চল্যকর এই ঘটনা ঘটেছে।

স্বজনরা জানান, প্রায় ২৭ বছর আগে আবুল হোসেনের বাবা মঞ্জুর মল্লিক ৭০ বছর বয়সে মারা যান। তাকে বাড়ির পাশে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে আবুল হোসেন ওই কবরস্থানের পাশে ঘর নির্মাণের জন্য শ্রমিক দিয়ে মাটি খোঁড়াখুঁড়ি শুরু করে। এক সময় তার বাবা মঞ্জুর মল্লিকের ২৭ বছর আগের দাফন করা অক্ষত লাশ বের হয়ে আসে।

মৃত মনজুর মল্লিকের সন্তানরা লাশটি তার বাবার বলে শনাক্ত করে জানান, প্রায় ২৭ বছর আগে তার বাবার স্বাভাবিক মৃত্যু হলে ওই স্থানে দাফন করা হয়। লাশটি মাটি খুঁড়ে বের হয়ে আসার পর দেখা যায়, লাশের শরীরে কোনো পরিবর্তন হয়নি, অক্ষত অবস্থায় রয়ে গেছে। এমনকি কাফনের কাপড়েরও কোনো পরিবর্তন ঘটেনি।

এলাকাবাসী জানান, প্রায় ২৭ বছর আগে অসুস্থতার কারণে মঞ্জুর মল্লিক মৃত্যুবরণ করেন। তিনি খুবই ধার্মিক প্রকৃতির মানুষ ছিলেন এবং নিয়মিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করতেন। এমনকি তাহাজ্জুদ নামাজও পড়তেন। ইসলামিক সব বিধিবিধান খুব ভালোভাবে মেনে চলতেন। মৃত্যুর পর তাকে বাড়ির সাথেই লাগানো পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।

২৭ বছর আগে মারা যাওয়া মঞ্জুর মল্লিকের অক্ষত লাশ শনাক্ত হওয়ার বিষয়টি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। ঘটনাটি জানার পর থেকে দূর-দূরান্ত থেকে উৎসুক জনতা ওই এলাকায় ভিড় করছে।

মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মোস্তফা জানান, মৃত ব্যক্তির ছেলে নতুন ঘর নির্মাণের জন্য মাটি কাটলে তার বাবার দাফন করা প্রায় ২৭ বছর আগের লাশটি কাফনসহ শনাক্ত হয়। পরে পরিবারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী অন্য স্থানে পুনরায় লাশটি দাফন করা হয়।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
সর্বশেষ
- Advertisement -spot_img
এ বিভাগে আরো দেখুন