English

26 C
Dhaka
শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৩
- Advertisement -

মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিত হলো জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস ওয়েবিনার

- Advertisements -

২৯ তম জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস ওয়েবিনার-২০২২ আয়োজন করেছে নিরাপদ সড়ক চাই মালয়েশিয়া চ্যাপ্টার। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নিসচা’র চেয়ারম্যান চিত্রনায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন।

Advertisements

সভাপতিত্ব করেন- নিসচা মালয়েশিয়া চ্যাপ্টারের সম্মানিত প্রেসিডেন্ট, মালয়েশিয়ার টুঙ্কু আবদুল রহমান বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান ডঃ সুলতানা আলম। নিসচা মালয়েশিয়া চ্যাপ্টারের সাংগঠনিক সম্পাদক জাফর ফিরোজের পরিচালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মালয়েশিয়া চ্যাপ্টারের সাধারণ সম্পাদক অনুপম পাল।

Advertisements

ওয়েবিনারের স্পিকার হিসেবে আলোচনায় অংশ গ্রহণ করেন মাশা ইউনিভার্সিটি মালয়েশিয়ার প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আবুল বাসার, এসোসিয়েট প্রফেসর ড. মো. নাজমুল হাসান মাজিজ, ইউনিভার্সিটি টেকনোলজি মালয়েশিয়ার সিনিয়র লেকচারার ডঃ মোহাম্মদ আলী তারেক, নিসচার ভাইস প্রেসিডেন্ট সাইয়েদ এহসানুল হক কামাল, কেন্দ্রীয় কমিটির মহাসচিব লিটন এরশাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম আজাদ। অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন আইন বিষয়ক সম্পাদক ডঃ মোহাম্মদ বেলাল হোসাইন এবং যুব বিষয়ক সম্পাদক মো. রুহুল আমিন।

এবারের জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস ২০২২’- এর প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল ‘আইন মেনে সড়কে চলি, নিরাপদে ঘরে ফিরি’। আলোচকরা মনে করেন সরকার দিবসটি ঘিরে এবারের এই প্রতিপাদ্য নির্বাচনের মধ্য দিয়ে আইনের সঠিক প্রয়োগ ও বাস্তবায়নের উপর জোড়ালো ভূমিকা রাখবে। সড়ক নিরাপত্তার প্রতিটি বিষয়কে গুরুত্ব দিয়ে নিরাপদ সড়ক চাই এবারের জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসের কর্মসূচি পালন করেছে। নিসচার উদ্যোগে কেন্দ্রীয় ও শাখা পর্যায়ে (দেশে ও বিদেশে) মোট ১১৩৭টি কর্মসূচি পালিত হয়েছে। নিসচা কর্তৃক পালিত কর্মসূচির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, সড়ক পরিবহন আইনের বিধিমালা জারির দাবি জানিয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর ̄স্মারকলিপি প্রদান, ওয়েবিনার, চালক প্রশিক্ষণ, শিক্ষক প্রশিক্ষণ, শিক্ষার্থী প্রশিক্ষণ, অভিভাবক সমাবেশ, বাস টার্মিনালে পরিবহন মালিক-শ্রমিক সমাবেশ ও সচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন, সুধী সমাবেশের আয়োজন ও মতবিনিময়, সাংবাদিক সম্মেলন, আলোচনাসভা, গোলটেবিল আলোচনা, সেমিনার, ট্রাফিক ক্যাম্পেইন,র‍্যালি, সড়ক দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা প্রদান, সড়ক মেরামত, সচেতনামূলক লিফলেট বিতরণ, পোষ্টার প্রকাশ, সড়কে বিভিন্ন ঝুঁকিপূর্ণ পয়েন্টে সতর্কতামূলক প্রচার ও নির্দেশিকা স্থাপন, বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি, বিভিন্ন গণমাধ্যমে চেয়ারমেনের বিষয়ভিত্তিক নিবন্ধ প্রকাশ ও ইলেকটধনিক মিডিয়ার বিভিন্ন টক শো-তে চেয়ারমেনের অংশগ্রহণ ইত্যাদি। জাতিসংঘ ঘোষিত সড়ক দুর্ঘটনার অন্যতম ৫টি পিলারের কথা আলোচকরা তুলে ধরেন। ১. সড়ক নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনা ২. নিরাপদ যানবাহন, ৩. নিরাপদ সড়ক ৪. নিরাপদ সড়ক ব্যবহারকারী, ৫. সড়ক দুর্ঘটনায় পরবর্তী করণীয়। সেইসাথে সড়ক দুর্ঘটনার জন্য ৫টি অতি ঝুঁকিপূর্ণ বিষয়ের উপর আলোকপাত করা হয় ১. গতি ২. হেলমেট ৩. সিটবেল্ট ৪. মদ্যপ অবস্থায় গাড়ী চালনা ও ৫. শিশু আসন এর উপর গুরুত্ব দিয়ে কার্যকর পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য সরকারের প্রতি জোর দাবি জানানো হয়।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন