English

35 C
Dhaka
রবিবার, এপ্রিল ২১, ২০২৪
- Advertisement -

খাদ্য মজুত অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে: খাদ্যমন্ত্রী

- Advertisements -

খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, ১ মার্চ থেকে সারাদেশে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি শুরু হচ্ছে। এ কর্মসূচিতে ৫০ লাখ মানুষ ১৫ টাকা হিসেবে ৩০ কেজি করে চাল পাবেন।

রবিবার সকালে নওগাঁ শহরের আটাপট্টি ও রুবীর মোড় এলাকায় চলমান ওএমএস কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এসব কথা বলেন তিনি।

Advertisements

ওএমএস কার্যক্রম কতদিন চলবে সাংবাদিকদের এমন এক প্রশ্নের জবাবে খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ওএমএস একটি চলমান কর্মসূচি। যতদিন এর চাহিদা থাকবে, ততদিন চলবে। প্রয়োজন হলে সারা বছরই চলবে। চাল দেওয়া হবে, আটাও দেওয়া হবে।

মন্ত্রী জানান, এ সময়ে ওএমএস চলে না, বন্ধ থাকে। নিম্ন আয়ের জনগণ যাতে কষ্ট না পায়, তার জন্য ওএমএস চালু রাখা হয়েছে এবং আমরা ওএমএস দিয়ে যাবো। আমাদের দেখার বিষয় জনগণ ঠিকঠাক মতো পাচ্ছে কি না, কোনো ডিলার স্মাগলিং করছে কি না এজন্য পরিদর্শন ও মনিটরিং চলবে।

সরকারি গুদামে খাদ্য মজুত অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে বলে জানান খাদ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, ১০ লাখ টন নিরাপত্তা মজুতের বিপরীতে বর্তমান ২১ লাখ টনের অধিক মজুত আছে। সারাদেশে প্রতিদিন চাল ও আটা মিলিয়ে প্রায় ১৪-১৫ হাজার টন খাদ্য বিতরণ করা হচ্ছে। যতদিন মানুষের চাহিদা থাকবে ততোদিন ওএমএস কার্যক্রম চালু রাখা হবে। এর পাশাপাশি খাদ্যবান্ধব অন্যান্য কর্মসূচিও চলবে। তাই আতঙ্কের কিছু নেই। দেশে কোনো খাদ্য সংকট হবে না।

Advertisements

ব্যবসায়ীদের হুঁশিয়ারি দিয়ে মন্ত্রী বলেন, অতি মুনাফার লোভে খাদ্যদ্রব্য মজুদ করে মানুষকে বিপদে ফেলার চেষ্টা করবেন না। নতুন আইন হচ্ছে। ইতিমধ্যে অনেক গ্রুপের বিরুদ্ধে মামলাও করা হয়েছে। নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

অভিযানে রাজশাহী আঞ্চলিক খাদ্য নিয়ন্ত্রক জিএম ফারুক হোসেন পাটোয়ারী, জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক আলমগীর হোসেনসহ খাদ্য বিভাগের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ওএমএস নিতে আসা নারী-পুরুষ জানান, চাহিদার তুলনায় বরাদ্দের পরিমাণ কম। বরাদ্দের পরিমাণ বাড়ালে তাদের সুবিধা হতো। এ সময় মন্ত্রী তাদের অসুবিধা বিবেচনার আশ্বাস দেন।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন