English

29 C
Dhaka
মঙ্গলবার, জুলাই ২৩, ২০২৪
- Advertisement -

দেশে একমাত্র আওয়ামী লীগই সুষ্ঠু নির্বাচন করে: হানিফ

- Advertisements -

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেছেন, ‘বেগম খালেদা জিয়া বিএনপির চেয়ারপারসন এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী। সেই হিসেবে তিনি সুচিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠেন এটা আমরা চাই। এবং সেই কারণে যদি বিএনপি বা বেগম খালেদা জিয়ার যারা চিকিৎসকবৃন্দ আছেন তারা যদি মনে করেন তার বিদেশে চিকিৎসার প্রয়োজন আছে তাহলে যেহেতু তিনি দণ্ডপ্রাপ্ত কয়েদি সেই হিসেবে তাকে আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে যেতে হবে।’

মঙ্গলবার (৩ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে কুষ্টিয়া এডুকেয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের আয়োজনে শিক্ষার মানোন্নয়নে অভিভাবক শিক্ষার্থীর সমাবেশে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

Advertisements

মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, ‘জাতি খুব দুর্ভাগ্যের সঙ্গে লক্ষ করছে যে বিএনপি প্রতিদিনই প্রায় সভাসমাবেশ করে বেগম খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি করছে। কিন্তু তার চিকিৎসার জন্য আইনি প্রক্রিয়ার মধ্যে যাচ্ছে না। এতে জাতির মধ্যে সন্দেহ সৃষ্টি হয় যে বিএনপি আসলে খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি করতে চায়, চিকিৎসা চায় না।’

তিনি আরও বলেন, ‘তারা ধরেই নিয়েছে বেগম খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি করলে রাজনৈতিক ফায়দা পাওয়া যাবে। সে কারণেই তাদের এই প্রক্রিয়া। না হলে তারা এতদিনে আইনের দোরগোড়ায় যেতো, আইনি প্রক্রিয়ায় মধ্যে যেতো। গেলে হয়তো একটা সমাধান আসতো। আমি এখনও আশা করি যে বিএনপি বেগম খালেদা জিয়ার এই শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি না করে তার যদি আরও উন্নত বা অধিকতর চিকিৎসা প্রয়োজন হয় সেটি আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে সমাধান করবে।’

হানিফ বলেন, ‘মার্কিন রাষ্ট্রদূতের বিষয়ে মির্জা ফখরুল সাহেবকে যে মুখপাত্র হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে এটা আমাদের জাতি অবশ্য জানে না। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশে আছেন, তিনি একটা দেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন। উনি যদি এখানে কোনও সমস্যায় পড়েন বা ওনার বিষয়ে কেউ কথা বলেন, সেটার জন্য মার্কিন রাষ্ট্রদূত তার প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে পারেন। কিন্তু একজন রাষ্ট্রদূতের পক্ষ হয়ে যখন একটি দলের প্রধান বা মহাসচিব কথা বলেন তখন জাতির মধ্যে এটা নিয়ে একটা সন্দেহ হয়। যে শঙ্কাটা জাতি করছে, বাংলাদেশকে নিয়ে এখন একটা ষড়যন্ত্র হচ্ছে আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডল থেকে। সেই ষড়যন্ত্রের কেয়ার অব হিসেবে বিএনপি ব্যবহৃত হচ্ছে। তার কেয়ার অব হিসেবে বিএনপি কাজ করছে, এটা বারবার উঠে এসেছে।’

Advertisements

তিনি আরও বলেন, ‘মির্জা ফখরুলের এই কথা আরেকবার প্রমাণ হলো যে বিএনপি এই মুহূর্তে বিদেশি শক্তির কেয়ার অব হিসেবে এই বাংলাদেশ নিয়ে কোনও দুরভিসন্ধিতে লিপ্ত আছে।’

আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘যেহেতু বিএনপি কখনও সুষ্ঠু নির্বাচনের প্রক্রিয়ায় হাঁটে নাই যার কারণে তাদের কাছে এটা অসম্ভব বলে মনে হবে। কিন্তু বাংলাদেশে একমাত্র আওয়ামী লীগই আছে যারা সুষ্ঠু নির্বাচন করে বা ২০০১ সালের নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর একেবারে শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করেছিল। যদিও সে নির্বাচন নিয়ে অনেক বিতর্ক আছে, নির্বাচনে ষড়যন্ত্র ছিল, ষড়যন্ত্রের কাছে পরাস্ত হতে হয়েছিল। তারপরেও শান্তিপূর্ণভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করেছিল। এর বাইরে কিন্তু কোনও সরকার পরাজিত হয়ে ক্ষমতা হস্তান্তর করার দ্বিতীয় কোনও রেকর্ড নেই।’

এ সময় কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসগর আলী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শেখ হাসান মেহেদী, কুষ্টিয়া সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা, এডুকেয়ার আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক রাসেলসহ বিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকগণ উপস্থিত ছিলেন।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন