English

28 C
Dhaka
বুধবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২২
- Advertisement -

লাগাতার আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারের পতন ঘটানো হবে: ফখরুল

- Advertisements -

রাজপথ দখলে নিতে নেতাকর্মীদের জেলা-মহানগর থেকে গ্রাম পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, আগামী ২২ আগস্ট থেকে বিক্ষোভ, মিছিল ও সমাবেশ নিয়ে সারা দেশে ছড়িয়ে পড়তে হবে। উপজেলা, জেলা ও মহানগরে লাগাতার আন্দোলনের মাধ্যমে রাজপথ দখলে নিয়ে সরকারের পতন ঘটানো হবে।

আজ বৃহস্পতিবার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে ঢাকা মহানগর উত্তর-দক্ষিণ আয়োজিত সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন। জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি ও ভোলায় পুলিশের গুলিতে দুই নেতা নিহত হওয়ার প্রতিবাদে সমাবেশ ডাকা হয়।

সমাবেশে বিএনপি নেতাকর্মীদের অংশগ্রহণে ব্যাপক জমায়েত হয়। নেতাকর্মীদের ব্যাপক সমাগমের কারণে কার্যালয়ের সামনের সড়ক বন্ধ হয়ে যায়। ফলে আশপাশের সড়কে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়। সর্বশেষ ২০২১ সালের ৩০ নভেম্বর নয়াপল্টনের সামনে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠানোর দাবিতে বিএনপি সমাবেশ করেছিল।

Advertisements

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, ‘সংগ্রাম শুরু হয়েছে, লড়াই শুরু হয়েছে, যুদ্ধ শুরু হয়েছে। এ লড়াই বেঁচে থাকার লড়াই, বাংলাদেশকে রক্ষা করার লড়াই। লড়াইয়ের মাধ্যমে রাজপথ দখল করতে হবে। এই লড়াইয়ে অবশ্যই আমাদের শরিক হতে হবে, আমাদের ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে, রাজপথ আমাদের দখল করতে হবে। ’

সরকারকে পদত্যাগের আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, নির্দলীয়-নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে। সংসদ ভেঙে দিতে হবে। নিরপেক্ষ ব্যক্তিদের দিয়ে নির্বাচন কমিশন গঠন করতে হবে।

সমাবেশে যোগদানের উদ্দেশ্যে নয়াপল্টনে আসার সময় বিভিন্ন স্থানে নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার ও বাধা দেওয়া হয়েছে অভিযোগ করে আটককৃত নেতাকর্মীদের মুক্তি দাবি করেন তিনি।

বাংলাদেশে নিযুক্ত সুইজারল্যান্ডের রাষ্ট্রদূতের বক্তব্যের প্রসঙ্গ টেনে স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, সরকার সুইস ব্যাংকের কাছে তথ্য চায়নি। কারণ, যারা টাকা পাচার করেছে তারা আওয়ামী লীগ নেতা।

Advertisements

স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘আমাদের কোনো কথা নেই আমাদের দাবি একটাই- শেখ হাসিনার পদত্যাগ। শেখ হাসিনাকে পদত্যাগ করতে হবে, এই সংসদ বাতিল করতে হবে, নির্দলীয়-নিরপেক্ষ সরকার দিতে হবে, এই নির্বাচন কমিশন বাতিল করতে হবে। আমরা যখন রাস্তায় নেমেই গেছি, আমরা দাবি আদায় না করে ঘরে ফিরে যাব না। ’

ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু বলেন, ‘বাংলাদেশ আজ লুণ্ঠিত। এই দুর্নীতিবাজ সরকারের লুণ্ঠন থেকে বাংলাদেশকে রক্ষা করা এখন সর্ববৃহৎ রাজনৈতিক বিএনপির ওপর একটা ঈমানি দায়িত্ব। ’

ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক আবদুস সালামের সভাপতিত্বে এবং সদস্যসচিব রফিকুল আলম মজনু ও আমিনুল হকের পরিচালনায় সমাবেশে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুল্লাহ আল নোমান, এ জেড এম জাহিদ হোসেন, শামসুজ্জামান দুদু, আহমেদ আজম খান, জয়নাল আবেদীন, আমান উল্লাহ আমান, আফরোজা খান রিতা, রুহুল কবির রিজভী, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, ফজলুল হক মিলন, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী প্রমুখ বক্তব্য দেন।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ

আল কোরআন ও আল হাদিস

আজকের রাশিফল

- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন