English

32 C
Dhaka
বুধবার, আগস্ট ১৭, ২০২২
- Advertisement -

স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছরেও শোষণ ও বৈষম্যহীন দেশ পায়নি দেশের মানুষ: গোলাম মোহাম্মদ কাদের

- Advertisements -

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জনবন্ধু গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি বলেছেন, স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছরেও শোষণ ও বৈষম্যহীন দেশ পায়নি দেশের মানুষ। তিনি বলেন, স্বাধীনতার মূল চেতনা ছিলো শোষণ ও বৈষম্যহীন সমাজ গঠন। অথচ, আওয়ামী লীগ ও বিএনপি বারবার রাষ্ট্র ক্ষমতায় গিয়ে স্বাধীনতার মূল চেতনা থেকে দেশকে দূরে সরিয়ে দিয়েছে। সংবিধানের মূল চারটি নীতির তিনটি থেকেই সরে গেছে দেশ।

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান-এর বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা জনবন্ধু গোলাম মোহাম্মদ কাদের-এর হাতে ফুল দিয়ে আজ দুপুরে গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ১১ দফা ছাত্র আন্দোলনের নেতা ও মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ইঞ্জিনিয়ার মোঃ সিরাজুল হক জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন। এসময় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান সদ্য যোগদানকারী নেতাকে স্বাগত জানিয়ে বক্তৃতা করেন। আজই ইঞ্জিনিয়ার মোঃ সিরাজুল হককে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান-এর উপদেষ্টা পদে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

Advertisements

এসময় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান জনবন্ধু গোলাম মোহাম্মদ কাদের আরো বলেন, পশ্চিম পাকিস্তান আমাদের শোষণ করেছে। প্রতিটি ক্ষেত্রে বৈষম্য করেছে আমাদের সাথে। পশ্চিম পাকিস্তানের এই আচরণ মেনে নিতে পারেনি দেশের মানুষ। এর প্রতিবাদে স্বাধিকার আন্দোলন থেকে স্বাধীনতা সংগ্রাম সংগঠিত হয়েছে। আমরা অর্জন করেছি গৌরবোজ্জল স্বাধীনতা।

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, শোষণ ও বৈষম্যহীন সমাজ গড়তে সংবিধানে চারটি মূলনীতি গ্রহণ করা হয়েছে। কিন্তু দুঃখের বিষয় হচ্ছে, সংবিধানের চারটি মূল নীতি থেকেও আমরা দূরে সরে গেছি। তিনি বলেন, সাংবিধানিকভাবেই দেশে একনায়কতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে, তাই গণতন্ত্র আর নেই। আবার সমাজতন্ত্র বাদ দিয়ে মুক্তবাজার অর্থনীতি গ্রহণ করা হয়েছে। আওয়ামী লীগ ও বিএনপি বারবার রাষ্ট্র ক্ষমতায় গিয়ে দুর্ণীতি ও স্বজনপ্রীতি এবং দলীয়করণ করেছে। এতে সামাজিক ন্যায় বিচার আর নেই। পশ্চিম পাকিস্তানীরা আমাদের শোষণ করতো এখন আমরা শোষিত হচ্ছি দেশের মানুষের কাছে। প্রতিবছর বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার বিদেশে পাচার হচ্ছে, বেগম পাড়া তৈরী হচ্ছে শোষণের টাকায়।

এছাড়া, জাতীয়তাবাদ বা নিজস্বতাও হারিয়ে যাচ্ছে। আমাদের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য রক্ষা করতে নেই কোন উদ্যোগ। বিজাতীয় সংস্কৃতি গ্রাস করছে আমাদের স্বকীয়তা। শুধু ধর্ম নিরপেক্ষতা বজায় আছে। রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম হলেও, হিন্দু, বৌদ্ধ, খৃষ্টান সহ সকল ধর্মের অনুসারীরা স্বাধীনভাবেই নিজ নিজ ধর্ম পালন করতে পারছে।

Advertisements

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এসময় আরো বলেন, আওয়ামী লীগ ও বিএনপি বারবার রাষ্ট্র ক্ষমতায় গিয়ে স্বাধীনতার মূল চেতনা থেকে দেশকে দূরে সরিয়ে দিয়েছে। দুর্নীতি, দলীয়করণ আর স্বজনপ্রীতির কারণে দেশের মানুষ আওয়ামী লীগ ও বিএনপির ওপর বিতশ্রদ্ধ। তাই দেশের মানুষ আগামী দিনে জাতীয় পার্টিকে রাষ্ট্র ক্ষমতায় দেখতে চায়। দেশের মানুষ বিশ্বাস করে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের চেয়ে জাতীয় পার্টি বেশি সুশাসন দিতে পারবে।

এসময় জাতীয় পার্টির মহাসচিব মোঃ মুজিবুল হক চুন্নু এমপি বলেন, আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’র দূর্ণীতি ও দুঃশাসনে দেশের মানুষ বিরক্ত। দেশের রন্ধ্রে রন্ধ্রে দূর্ণীতি, দূর্ণীতির আখড়ায় পরিণত হয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীনরা যেভাবে শক্তি প্রদর্শন করেছে তাতে দেশের মানুষ আর সরকারের উপর আস্থা রাখতে পারেনা। দেশের মানুষ ভালো নেই, কাজ নেই, বেড়েছে বেকারত্ব। অনেক কষ্টে দিনাতিপাত করছে সাধারণ মানুষ, দেখার যেন কেউ নেই।

যোগদান অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব মোঃ মুজিবুল হক চুন্নু, প্রেসিডিয়াম সদস্য এডভোকেট মোঃ রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তফা আল মাহমুদ, উপস্থিত ছিলেন প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, আব্দুস সাত্তার, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ হেলাল উদ্দিন, দফতর সম্পাদক-২ এমএ রাজ্জাক খান, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ নজরুল ইসলাম, যুগ্ম দফতর সম্পাদক সমরেশ মন্ডল মানিক, যুগ্ম আন্তর্জাতিক সম্পাদক এসএম পারভেজ রহমান, কেন্দ্রীয় নেতা শেখ মোহাম্মদ সরোয়ার হোসেন, মোঃ রেজাউল করিম, জাকির হোসেন খান, মোঃ ফরিদ আলম, গাজীপুর সদস্য সচিব আলহাজ্ব কামরুজ্জামান মন্ডল, যুগ্ম আহবায়ক অধ্যাপক এমএ আজিজ, এসএম কিবরিয়া।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন