English

28 C
Dhaka
মঙ্গলবার, মে ২৪, ২০২২
- Advertisement -

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

- Advertisements -
Advertisements

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে পলাশী রানী রায় নামে দুই সন্তানের জননীর রহস্যজনক মৃত্যুকে ঘিরে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের সিঙ্গিমারী বাবুপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড হলেও তা আত্মহত্যা হিসেবে চালানোর চেষ্টা চলছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।

Advertisements

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, গত সোমবার (৯ মে) সকাল ৮টার দিকে পলাশী রানীকে (৩৩) অচেতন অবস্থায় ঘর থেকে বের করে বারান্দায় শুইয়ে রেখে তার পরিবারকে খবর দেন পেশায় দর্জি স্বামী মিনাল রায়।

খবর পেয়ে প্রায় চার ঘণ্টা পর পাশের ফুলবাড়ী উপজেলার শমসের নগর গ্রামের বাসিন্দা বাবা ধলু রায় ও মা পলাশী ছুটে এসে মেয়েকে অচেতন অবস্থায় বারান্দায় শুয়ে থাকতে দেখে পানি পান করান। এরপর তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বিষয়টি থানায় জানানো হলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর মর্গে পাঠায়। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে লাশের ময়নাতদন্ত শেষে সৎকার সম্পন্ন করা হয়।
এদিকে ঘটনাস্থলে গেলে পলাশীর বাবা ধলু রায় (৫৫) জানান, ঘটনার পরপর যদি আমার মেয়েকে হাসপাতালে ভর্তি করা হতো তাহলে সে বেঁচে যেত। ধলু রায়সহ উপস্থিত একাধিক গ্রামবাসী জানান, মিনাল জমিজমা বিক্রি করে ভারতে যেতে ইচ্ছুক। কিন্তু তার স্ত্রী পলাশী কিছুতে বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র যেতে রাজি নয়। এ নিয়ে প্রতিনিয়ত স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়াঝাটি লেগে থাকত। শেষে রহস্যজনক মৃত্যু হয়।

এলাকাবাসী সঠিক তদন্ত সাপেক্ষে এ মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনের দাবি জানান। পরিবারের দাবি যা হবার তা হয়েছে। এখন দুই সন্তানকে মানুষ করতে হবে। এ জন্য বাড়াবাড়ির দরকার নেই। দুই ছেলের মধ্যে বড় ছেলে অলিন্দ (১৩) অষ্টম শ্রেণির ছাত্র এবং ছোট ছেলে অপূর্ব (৪) প্রতিবন্ধী।

পার্বতীপুর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সুজয় কুমার রায় জানান, এ ব্যাপারে থানায় অস্বাভাবিক মৃত্যু মামলা হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন