English

28 C
Dhaka
মঙ্গলবার, মে ২৪, ২০২২
- Advertisement -

কিশোরের বুদ্ধিমত্তায় আগুন থেকে রক্ষা পেল ট্রেন

- Advertisements -

রেললাইনের অদূরে খেলা করছিল ১৩ বছরের ইফাদ ও তার অন্য বন্ধুরা। হঠাৎ রেল সেতুর মাঝামাঝি রেললাইনের স্লিপারে আগুন আর ধোঁয়ার কুণ্ডলী তার চোখে পড়ে। বাড়ির পাশে রেললাইন হওয়ায় সে জানে একটু পরই চলে আসবে ট্রেন।

রেললাইনে আগুন জ্বালতে দেখেই সে দৌড়ে বালতি ভর্তি পানি নিয়ে আসে এবং ওই জ্বলন্ত ধোঁয়ার কুণ্ডলীতে ভরা বালতি পানি নিক্ষেপ করে। ওই মুহূর্তেই আখাউড়া থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী মালবাহী একটি ট্রেন রেল সেতুতে প্রবেশ করে। জ্বলে উঠা আগুনও তখন নিভে যায়।

Advertisements

কিশোর ইফাদ ট্রেনের সামনে থেকে কোনোরকমে লাফিয়ে সেতুর খুঁটির মাঝে বসে জীবনরক্ষা করে। দুর্ঘটনামুক্ত ট্রেনও গন্তব্যের উদ্দেশে চলে যায়।

বৃহস্পতিবার দুপুরে আখাউড়া উপজেলার মোগড়া ইউনিয়নের গঙ্গাসাগর রেলওয়ে স্টেশনের উত্তর আউটার সিগন্যাল এলাকার পাশে এ ঘটনা ঘটে। কিশোর ইফাদের জীবনবাজি রেখে তার বুদ্ধিমত্তায় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছে ওই চট্টগ্রামগামী মালবাহী ট্রেন। বিপদ থেকে বাঁচলেন ট্রেনটির চালক, গার্ডসহ ট্রেনে বহনকৃত মালামাল।

বিষয়টি দূর থেকে একজন সংবাদকর্মী ভিডিও ধারণ করেন। এ ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে প্রশংসার জোয়ারে ভাসছে স্কুলছাত্র ইফাদ।

Advertisements

কিশোর ইফাদ জানান, তার বাড়ির পাশে রেল সেতু। পাশেই বন্ধুদের নিয়ে খেলা করছিল সে। হঠাৎ রেল সেতুর স্লিপারে আগুন আর ধোঁয়ার কুণ্ডলী দেখে। এ অবস্থায় ট্রেন চলাচল করলে বড় ধরনের দুর্ঘটনার ঘটতে পারে- এমন আশঙ্কা থেকেই সে দৌড়ে বালতি ভর্তি পানি দিয়ে আগুন নেভায়।

ইফাদ ওই ইউনিয়নের গঙ্গানগর গ্রামের বাসিন্দা।

আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশনের সুপারিন্টেন্ডেন্ট (ভারপ্রাপ্ত) মো. জসিম উদ্দিন বলেন, জানতে পেরেছি স্কুলছাত্র ইফাদের বুদ্ধিমত্তায় ও সচেতনতার জন্য বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছে ট্রেনটি। তার এ ভূমিকা সত্যিই প্রশংসনীয়। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট দফতরের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন