English

31 C
Dhaka
বুধবার, মে ২২, ২০২৪
- Advertisement -

শিবগঞ্জের কিচক পানিতলা সড়কে যাতায়াতে চরম ভোগান্তি

- Advertisements -
Advertisements
Advertisements

বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার কিচক বন্দর হইতে পানিতলা বাজার পর্যন্ত সড়কটি দীর্ঘদিন সংস্কার না করায় বেহাল অবস্থায় রয়েছে। খানাখন্দে ভরা ৮ কিলোমিটার দীর্ঘ এ সড়ক দিয়ে যাতায়াতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হয় যাত্রী ও যান বাহান চালকদের। সড়কের মাঝখানে থাকা বড় বড় গর্তে পড়ে উল্টে যাচ্ছে অটোরিকশাসহ ছোট-বড় অসংখ্য যানবাহন। কিন্তু বিকল্প সড়ক না থাকায় ঝুঁকি নিয়েই প্রতিদিন যাতায়াত করছে হাজারো মানুষ।
সরেজমিন ওই সড়কটিতে গিয়ে দেখা গেছে, শিবগঞ্জ উপজেলার কিচক বন্দর থেকে শুরু হয়ে সড়কটি পানিতলা বাজারে গিয়ে শেষ হয়েছে। এর মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি বাজার, স্কুল, মাদ্রাসা রয়েছে। এলাকার রাস্তার মোড়ে মোড়ে গড়ে উঠেছে ছোট ছোট বন্দর। কিন্তু বেহাল অবস্থার কারণে এ সড়ক দিয়ে হেঁটে চলাও দায়। খানাখন্দে ভরা সড়কে একটু বৃষ্টি হলেই আটকে থাকে পানি। আর এ পথে চলতে গেলেই উল্টে যায় রিকশা, ভ্যানের মতো ছোট ছোট যানবাহন।
এলাকাটি কৃষি প্রধান হওয়ায় প্রতিনিয়ত কাঁচামাল বাহী গাড়ি পণ্য নিয়ে উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারে যাতায়াত করে। সড়কটি খারাপ হওয়ার কারণে দ্রুত নষ্ট হয়ে যাচ্ছে যানবাহন। বর্ষায় সড়কের অধিক স্থানে পানি জমে থাকে আবার শুষ্ক মৌসুমে ধুলাবালি। সড়কটি বেহাল অবস্থার কারণে ভোগান্তি যেন বাড়ছেই। এছাড়া একাধিক ঝুঁকিপূর্ণ মোড় থাকায় দুর্ঘটনা ঘটছে হরহামেশা। দ্রুত এ সড়ক সংস্কার না হলে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন পথচারীরা।
অটোরিকশা চালক সুলতান উদ্দিন বলেন, আমরা গরিব মানুষ, দিন আনি দিন খাই। রাস্তার কারণে গাড়ির পেছনে যত টাকা খরচ হয়, তাতে আমাদের পরিবার নিয়ে দুবেলা দুমুঠো খাওয়াই কঠিন হয়ে পড়েছে। লোকজন ভয়ে গাড়িতে উঠতে চায়না। আমার সংসার কিভাবে চলবে তা নিয়েই চিন্তায় আছি।
এ সড়ক দিয়ে নিয়মিত চলাচল করেন আলেমা বেগম। সম্প্রতি ভাঙা সড়কে রিকশা উল্টে আহত হন তিনি। আলেমা বেগম বলেন, আমি মেয়ের বাড়ি থেকে অটোরিকশায় বাড়ি ফিরছিলাম। সামনের দিক থেকে আসা একটি অটোরিকশাকে জায়গা দিতে গেলে সড়কের ভাঙা অংশে আমাদের গাড়ির চাকা ডেবে গিয়ে অটোরিকশা উল্টে যায়। আমিসহ অটোর পাঁচ যাত্রী আহত হন।
সব মিলে বেহাল সড়কের কারণে উপজেলার ওই এলাকার সাধারণ মানুষের ভোগান্তি চরম মাত্রায় উঠেছে। দ্রুত সড়কটি সংস্কারের যদি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা না নেওয়া হয়, তাহলে যেকোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটারও সম্ভাবনা রয়েছে।
এসব বিষয়ে বগুড়া এলজিইডি’র নির্বাহী প্রকৌশলী কাজী সাইফুল কবির বলেন, জেলার অনেক রাস্তার সংস্কারের কাজ চলছে। কিচক বন্দর হতে পানিতলা বাজার পর্যন্ত সড়কটি পর্যায়ক্রমে দ্রুত সংস্কার করা হবে।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ

আল কোরআন ও আল হাদিস

আজকের রাশিফল

- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন