English

34 C
Dhaka
সোমবার, জুলাই ৪, ২০২২
- Advertisement -

টেনিস কোর্টে রাশিয়ার বিরুদ্ধে জয় ইউক্রেনের

- Advertisements -
Advertisements
Advertisements

ইউক্রেনের ওপর রাশিয়ার সামরিক অভিযান অব্যাহত রয়েছে। রুশ আগ্রাসন প্রতিরোধে সামরিক বাহিনীর পাশাপাশি অস্ত্র হাতে তুলে নিয়েছেন সাধারণ ইউক্রেনীয়রা।

এর বাইরে প্রতিবাদে সরব হচ্ছেন দেশটির হয়ে প্রতিনিধিত্বকারী ক্রীড়াবিদরাও। তাদের মধ্যে এলিনা স্ভিতোলিনা একজন। পেশায় টেনিস খেলোয়াড় স্ভিতোলিনা আবার প্রতিবাদের পাশাপাশি ‘যুদ্ধের বাইরে আরেক যুদ্ধে’ রাশিয়াকে হারিয়েও দিয়েছেন।

মেক্সিকোর মন্তেরেতে এক টেনিস টুর্নামেন্টে অংশ নিয়েছিলেন স্ভিতোলিনা। প্রতিযোগিতার এক পর্যায়ে তিনি মুখোমুখি হয়েছিলেন রুশ টেনিস তারকা আনাস্তাসিয়া পোটাপোভার। কিন্তু মাঠে নামার আগেই এলিনা জানিয়ে দেন, তিনি কোনো রাশিয়ার খেলোয়াড়ের সঙ্গে খেলবেন না। রাশিয়ার প্রতিযোগিরা নিজের দেশের নাম বা পতাকা নিয়ে খেলতে পারবেন না, মহিলাদের টেনিস সংস্থা ডব্লিউটিএ’র এই ঘোষণার পর রুশ তারকা পোটাপোভার বিপক্ষে মাঠে নামেন স্ভিতোলিনা।

মাঠে নেমে রুশ প্রতিদ্বন্দ্বীকে রীতিমত উড়িয়ে দিয়েছেন স্ভিতোলিনা। ৬৪ মিনিটের লড়াইয়ে ২-৬, ১-৬ গেমে জয় পান তিনি। ইউক্রেনের জাতীয় পতাকার আদলে হলুদ রংয়ের টপ ও নীল রংয়ের শর্টস পরে কোর্টে নেমেছিলেন স্ভিতোলিনা। ম্যাচের শুরু থেকেই রাশিয়ার প্রতিদ্বন্দ্বীর বিরুদ্ধে যুদ্ধংদেহী মনোভাব নিয়ে খেলছিলেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ফলও যায় তার পক্ষেই। ম্যাচ শেষে আবেগী কণ্ঠে তিনি জানান, ম্যাচ জিতে যে প্রাইজমানি তিনি পেয়েছেন তা ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর জন্য দান করে দেবেন তিনি।

ম্যাচ জেতার পর মঞ্চে দাঁড়িয়ে স্ভিতোলিনা বলেন, ‘এটা আমার জন্য অনেক বিশেষ একটা ম্যাচ এবং মুহূর্ত। মনটা ভালো ছিল না, তবে এখানে টেনিস খেলতে পেরে আমি গর্বিত। দেশের জন্য আমি একটা নির্দিষ্ট লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছি। ইউক্রেনে যা হচ্ছে তার বিরুদ্ধে গোটা টেনিস সম্প্রদায়কে এক করাই আমার কাজ। এখানে যত অর্থ আমি আয় করেছি তার পুরোটাই ইউক্রেন আর্মির কাছে যাচ্ছে। সমর্থনের জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। ‘

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন