English

29 C
Dhaka
মঙ্গলবার, জুলাই ২৩, ২০২৪
- Advertisement -

‘সত্য বেরিয়ে আসবে’-বললেন ডোপ কেলেঙ্কারিতে ৪ বছর নিষিদ্ধ হালেপ

- Advertisements -

ডোপ টেস্টে পজিটিভ হওয়ায় ৪ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন বিশ্ব নারী টেনিসের সাবেক ‘নাম্বার ওয়ান’ সিমোনা হালেপ। তবে এই নিষেধাজ্ঞা মানতে রাজি নন রোমানিয়ান টেনিস তারকা।

২০১৮ সালে ফরাসি ওপেন এবং পরের বছর উইম্বলডন জেতা হালেপকে মঙ্গলবার নিষিদ্ধ করেছে ইন্টারন্যাশনাল টেনিস ইন্টিগ্রিটি এজেন্সি। তার নমুনায় গত বছর ইউএস ওপেনের সময় নিষিদ্ধ ওষুধ পাওয়া গিয়েছিল।

Advertisements

দু’বারের গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ীর নমুনায় নিষিদ্ধ শক্তি বর্ধক রোক্সাডুস্ট্যাটের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। ফলে তার বিরুদ্ধে ডোপিং বিরোধী দু’টি নিয়মভঙ্গের শাস্তি হয়েছে।

নমুনায় নিষিদ্ধ শক্তি বর্ধক পাওয়ার পর ২০২২ সালের অক্টোবর মাস থেকে সাময়িক নিষিদ্ধ করা হয়েছিল হালেপকে। এবার তিনি পেলেন চার বছরের নিষেধাজ্ঞা।

হালেপ অবশ্য ডোপিংয়ের অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তার দাবি, তিনি কোনও নিষিদ্ধ ওষুধ খাননি। অসুস্থতার জন্য তাকে রক্তাল্পতার ওষুধ খেতে হয়েছিল। যে ওষুধ তিনি খেয়েছেন, তা নিষিদ্ধ নয়।

Advertisements

হালেপ বলেন, ‘আমি স্তম্ভিত। আশা করি একদিন সত্য বেরিয়ে আসবে। এটা প্রমাণ করার জন্য আমি শেষ পর্যন্ত লড়াই করব।’

যদিও তার শরীরে যে পরিমাণ রোক্সাডুস্ট্যাট পাওয়া গিয়েছে, তা হালেপের দাবির সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয় বলে জানিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল টেনিস ইন্টিগ্রিটি এজেন্সি। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে অ্যাথেলিট বায়োলজিক্যাল পাসপোর্টে অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে।

বিশ্বের সাবেক এক নম্বর টেনিস খেলোয়াড় হালেপ। ২০১৯ সালে উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন তিনি। ২০১৮ সালে ফরাসি ওপেনও জিতেছিলেন রোমানিয়ার ৩১ বছর বয়সী টেনিস ললনা।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন