English

28 C
Dhaka
বুধবার, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২২
- Advertisement -

শ্রমিকদের হাতের ছোঁয়ায় প্রাণ ফিরল চা বাগানে

- Advertisements -
Advertisements
Advertisements

টানা ১৯ দিন আন্দোলনের পর মজুরি নিয়ে সমস্যার অবসান হওয়ার পর হবিগঞ্জের ২৪টি চা বাগানে পুরোদমে কাজ শুরু করেছেন শ্রমিকরা। সোমবার সকাল থেকেই জেলার বাগানগুলোতে তারা কাজে লেগে যান। পাতা উত্তোলন শুরু করেন। এতে আবারও প্রাণ ফিরে পেয়েছে চা বাগানগুলো।

দীর্ঘ বিরতির পর শ্রমিকদের শৈল্পিক হাতের ছোঁয়া পেয়েছে চা গাছ। বাগানের ফ্যাক্টরির মেশিনগুলোও বিকেলে সচল হয়। মঙ্গলবার থেকে চা উৎপাদনও শুরু হবে পুরোদমে।
সোমবার হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার বিভিন্ন চা বাগানে সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, টানা আন্দোলনের পর মজুরি বাড়ায় শ্রমিকদের মধ্যেও আনন্দের শেষ নেই। বিপুল উৎসাহ নিয়ে কাজে বেরিয়েছেন তারা। দীর্ঘ আন্দোলন চলাকালে বাগানের পাতা উত্তোলন না করায় অনেক বড় হয়ে গেছে গাছ। তাই কিছুটা কষ্ট করে পাতা উত্তোলন করছিলেন শ্রমিকরা।
ফয়জাবাদ চা বাগানের পঞ্চায়েত সভাপতি দুলাল সাঁওতাল বলেন, ‘টানা ১৯ দিন আন্দোলন করে আজ কাজে যোগ দিয়েছি। কর্মস্থলে ফিরেছে শ্রমিকরা। ’

ফয়জাবাদ চা বাগানের ব্যবস্থাপক সৈয়দ গোলাম সাকলাইন বলেন, ‘ইতিমধ্যে বাগানের অনেক ক্ষতি হয়ে গেছে। আমরা চেষ্টা করব যেন একটু বেশি কাজ করিয়ে সে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পারি। ’

জানা গেছে, দৈনিক মজুরি ৩০০ টাকা করার দাবিতে গত ৯ আগস্ট থেকে চার দিন দুই ঘণ্টা করে কর্মবিরতি করেন চা শ্রমিকরা। এরপর তারা ১৩ আগস্ট থেকে পূর্ণদিবস কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ করেন। অবশেষে প্রধানমন্ত্রী তাদের মজুরি ১৭০ টাকা নির্ধারণ করে দিলে সোমবার থেকে পুরোদমে কাজে ফিরে যান শ্রমিকরা।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ

আল কোরআন ও আল হাদিস

- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন