English

24 C
Dhaka
বুধবার, ফেব্রুয়ারি ১, ২০২৩
- Advertisement -

ইতালি প্রবাসী নারীদের বিজয় ফুল উদযাপন

- Advertisements -

ইসমাইল হোসেন স্বপন ইতালি প্রতিনিধি: একাত্তরের বীর সেনাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ও মুক্তিযোদ্ধের চেতনা প্রবাসে বেড়ে ওঠা প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দিতে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ইতালিতে বিজয়ফুল উদযাপন করেছে প্রবাসী নারী আওয়ামী সমর্থক নেতৃবৃন্দরা।

গত কাল রাজধানীর রোমে রসই রেস্টুরেন্ট হলরুমে আয়োজিত এই বিজয় ফুল অনুষ্ঠানে নারীনেত্রী মেহেনাস তাব্বাসুম শেলির পরিচালনায় অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইতালি আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহতাব হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলমগীর হোসেন, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম এ রব মিন্টু, বাংলাদেশ সমিতি ইতালি সভাপতি আফতাব বেপারী, বাংলাদেশ ক্রীড়া সংস্থা ইতালি সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশিদ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ফজলুল হক ভুট্টো সহ ইতালি আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের শীর্ষ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।

Advertisements

অনুষ্ঠানের শুরুতেই একে অপরকে লাল সবুজের ব্যাচ পরিয়ে দেবার মধ্যদিয়ে উদ্বোধন করা হলো মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হওয়া বিজয়ফুল কর্মসূচির অনুষ্ঠান।

অনুষ্ঠানে নেতৃবৃন্দরা বলেন বহির্বিশ্বে বসবাসরত বাংলাদেশিদের কাছে বিজয় ফুল হয়ে ওঠেছে মুক্তিযুদ্ধের প্রতীক। আর এই প্রতীক প্রবাসে বেড়ে ওঠা আগামী প্রজন্মের মধ্য ছড়িয়ে দিতে ও মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বাংলাদেশের সাংস্কৃতিকে পরিচিত করিয়ে দিতে এ বিজয়ফুল কর্মসূচি ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।

মুক্তিযোদ্ধা মাহতাব হোসেন মুক্তিযোদ্ধের ইতিহাস তুলে ধরেন এবং বলেন, ‘মুক্তিযোদ্ধারা শুধু মাত্র একটি স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখেছিলো যেখানে এই বাঙালি জাতি মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকবে। তাই সকলের উচিত এই স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করা।

মোঃ আলমগীর হোসেন বলেন: ‘আমরা দেশে বা প্রবাসে যেখানেই থাকি না কেন, আমাদের মধ্যে দেশ প্রেম জাগ্রত করতে হবে। আমাদের অনেক ত্যাগের বিনিময়ে এই বিজয়ের ইতিহাস পরিপূর্ণ ও সঠিক ভাবে জানতে ও আগামী প্রজন্ম কে জানাতে হবে।

Advertisements

আর তাই এই ধরনের কর্মসূচি ও আয়োজন গুলো আমাদের বেশি বেশি করে করতে হবে। তিনি আরও বলেন, ‘ডিসেম্বরের এই বিজয় আমাদের একটি স্বাধীন দেশ দিয়েছে আর এই স্বাধীনতা যার জন্য আমরা পেয়েছি তিনি হলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।’

এসময় প্রবাসী নারী আওয়ামী নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জোবাইদা গুলশান আরা সিমু, সুলতানা নিগার মিতা, শিল্পী চৌধুরী, মলিন তাহের, সাবিকুন নাহার রত্না, দিনা ইসলাম, নাসরিন আক্তার, জুহুরা আক্তার ঈশিতা, জাহান রুবি, দিনা ইসলাম, শিল্পী, তাসলিমা বেগম, রুমিতা ঘোষ, রীমা, সুমি, লিজা, ছাড়াও আরও অনেকে।

অনুষ্ঠানে সঞ্চারী সংগীতায়নের কর্ণধার সুস্মিতা সুলতানার তত্ত্বাবধায়নে শিশু কিশোরদের গান ও নৃত্যবিজয় ফুল কর্মসূচি বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দেওয়ার প্রত্যয় নিয়ে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে
অনুষ্ঠান সমাপ্ত হয়।

সাবস্ক্রাইব
Notify of
guest
0 মন্তব্য
Inline Feedbacks
View all comments
Advertisements
সর্বশেষ
- Advertisements -
এ বিভাগে আরো দেখুন